শত বছরে বিয়ে!

শত বছর বয়সে রীতিমত বর সেজে দশম বিয়ে সম্পন্ন করে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছেন ফরিদপুরের ভাঙ্গা পৌর সদরের কাপুরিয়া সদরদী গ্রামের সেখ ওয়াজেদ ফকির। তিনি গত সোমবার একই উপজেলার তুজারপুর ইউনিয়নের জান্দি গ্রামের ইনাজউদ্দিন সরকারের মেয়ে মমতাজ বেগম (৪৫) কে ১ লক্ষ টাকা দেনমোহর ধার্য করে বিয়ে করেছেন।

মঙ্গলবার ভোর হতেই শত শত উৎসুক জনতা নবদম্পতিকে এক নজর দেখতে ভীড় জমাতে থাকে তার বাড়ীতে।

সেখ ওয়াজেদ ফকির জানান, প্রথম স্ত্রী আমেনাকে হারানোর পর থেকে সংসার চালানোর জন্য এ পর্যন্ত ফুলি বেগম, কুলছুম বেগম, আমিরন নেছা, হাছিনা বেগম, জমিরন বেগম, জরিনা বেগম ও নিহার বেগমসহ ৯টি বিবাহ করেছেন। এদের মধ্যে ৫ জন মারা যায় অপর ৪জন আমাকে ছেড়ে চলে যায়।

তিনি জানান, সংসার করা অবস্থায় ৭টি সন্তান জন্ম দিলেও নুরুল হক নামের বাক প্রতিবন্ধি ১টি সন্তান ছাড়া সবাই মারা গেছেন। গত ৪ মাস আগে সর্বশেষ স্ত্রী নিহার মারা যাবার পর একজন সঙ্গীর জন্যই এই দশম বিয়ে।

সেখ ওয়াজেদ ফকির তার বয়স শতবছর পূর্ণ হয়েছে বলেও জানান। আবেগ-আপ্লুত কন্ঠে তিনি বলেন, ‘আমার এত বয়স হওয়ায় আমার চলতে ফিরতে খুবই কষ্ট হয়। আজ পর্যন্ত সরকার আমাকে একটি বয়স্ক ভাতা দেয়নি। অথচ বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাকে যুদ্ধ পরবর্তীতে একটি নৌকা দিয়েছিলেন জীবিকা নির্বাহের জন্য। সে নৌকাটি এখন আর নেই।’

অপরদিকে তার ১০ম বধূ মমতাজ বেগম বলেন, ‘বাকী জীবন যেন আমি তেনারে সাথে নিয়ে বাঁচতে পারি সে জন্য দোয়া করবেন।’

You Might Also Like