তামিম আউট, বাংলাদেশ ২০৪/৩

নিউজিল্যান্ডের নেলসনে স্যাক্সটন ওভাল স্টেডিয়ামে স্কটল্যান্ডের ছুড়ে দেয়া ৩১৯ রানরে বিশাল টার্গেটের বোঝা কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন তামিম ইকবাল ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। দলীয় ৫ রানে সৌম্য সরকারের বিদায়ের পর দলের হাল ধরেন এই দু’জন সিনিয়র ক্রিকেটার। দু’জনই তুলে নিয়েছেন ফিফটি। তৃতীয় উইকেটে এই দু’জনের ১৩৯ রানের জুটিতে ভর করে ওভার শেষে টাইগারদের সংগ্রহ ১৪৪ রান। কিন্তু ঠিক সেই মুহুর্তে ৬২ রান করে আউট হন মাহমুদুল্লা রিয়াদ। তবে তামিম ইকবাল ওয়ানডে ক্যারিয়ারে নিজের চার হাজার রান সংগ্রহ করেছেন। এই বিশ্বকাপেই বাংলাদেশের আরেক ব্যাটসম্যান সাকিব আল হাসান ওয়ানডেতে প্রথম চার হাজার রান সংগ্রহ করে। অন্যদিকে ফিল্ডিং করার সময় দলের ওপেনার এনামুল হক বিজয় কাঁধে চোট পান। তাকে এমআর আই করার জন্য নেয়া হয়েছে হাসপাতালে। তার পরিবর্তে তামিম ইকবালের সঙ্গে ওপেন করতে এসেছিলেন  সৌম্য। তবে ৫ বল খেলে ২ রান করেই আউট হন তিনি। মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের বিদায়ের পর তামিম ইকবালের সঙ্গে দলের হাল ধরেছেন মুশফিকুর রহীম। তারা ৫৭ রানের জুটি গড়েন। আউট হওয়ার আগে বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ৯৫ রান করেন তামিম। এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ দলের সংগ্রহ ২৫ ওভারে ১৫৫ রান ২ উইকেট হারিয়ে।  এখন বাংলাদেশ দলের জয়ের জন্য প্রয়োজন ২৫ ওভারে ১৬৪ রান।

এর আগে ওপেনার কাইল কোয়েটজারের রেকর্ড সেঞ্চুরিতে ভর করে কোন টেস্ট খেলুড়ে দেশের বিপক্ষে দলীয় সর্বোচ্চ রান করে স্কটল্যান্ড। টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে স্বটিশদের সংগ্রহ ৩১৮ রান ৮ উইকেট হারিয়ে। এটি তাদের ওয়ানডে ক্যারিয়ারে তৃতীয়ও বিশ্বকাপে প্রথম সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ। বাংলাদেশের বিপক্ষে স্কটল্যান্ডের ছুড়ে দেয়া সর্বোচ্চ এই রেকর্ড সংগ্রহ পার করেই জিততে হবে টাইগারদের। এর আগে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে বিশ্বকাপের ইতিহাসে স্কটল্যান্ডের প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে সেঞ্চুরি করেছেন কাইল কোয়েটজার। শুধু সেঞ্চুরি করেই থামেনি তিনি আউট হওয়ার আগে স্কটল্যান্ডের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৫৬ রান করেন তিনি। নাসির হোসেনের দ্বিতীয় শিকারে পরিনত হওয়ার আগে তিনি ১৩৪ বল খেলেন, হাঁকান ১৭টি চার ও ৪টি ছয়ের মার। তার সেঞ্চুরিতে ভর করে বাংলাদেশের বিপক্ষে বড় সংগ্রেহের ভিত পায়  স্কটল্যান্ড। কাইল কোয়েটজার আউট হওয়ার আগে অধিনায়ক ১৪১ রানের জুটি বেঁধে ছিলেন। কিন্তু  প্রেস্টন মমসেন ৩৯ রানে আউট করেছেন নাসির হোসেন সেই জুটি ভেঙ্গেছে দলের জন্য প্রথম স্বস্তি এনে দেন।  শেষ পর্যন্ত ৫০ ওভারে স্কটল্যান্ডের সংগ্রহ ৮ উইকেটে হারিয়ে ৩১৮ রান। এর আগে ম্যাচের শুরুতে তৃতীয় ওভারেই আঘান হানেন মাশরাফি বিন মুর্তজা। স্কটল্যান্ডের ক্যালাম ম্যাকলয়েডকে মাহমুদুল্লাহর ক্যাচে পরিণত করেন বাংলাদেশের অধিনায়ক। দশম ওভারে তাসকিন আহমেদ ফিরিয়ে দেন হ্যামিশ গার্ডিনারকে। ২৪তম ওভারে বল করতে এসেই স্কটল্যান্ডের প্রতিরোধ ভাঙেন সাব্বির রহমান। নিজের ফিরতি ক্যাচ নিয়ে প্রথম ওভারেই ম্যাট মাচানকে বিদায় করেন তিনি। ওয়ানডেতে এটাই সাব্বিরের প্রথম উইকেট। তবে শেষ মুহুর্তে নাসির হোসেন ও তাসকিন আহমেদ স্কটল্যান্ডের রানের লাগাম টেনে ধরেন। তাসকিন ৩টি ও নাসির ২টি উইকেট তুলে নিয়ে।

এর আগে নেলসনের স্যাক্সটন ওভালে টস জিতে ফিল্ডিং নেয় বাংলাদেশ। বাংলাদেশ দলে একটি পরিবর্তন এসেছে। মুমিনুল হকের জায়গায় দলে এসেছেন নাসির হোসেন। অপরিবর্তিত রয়েছে স্কটল্যান্ড দল।

You Might Also Like