হামাসকে সন্ত্রাসী ঘোষণা মিশরের

ইসরায়েল, যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার পর এবার ফিলিস্তিনের একাংশের নিয়ন্ত্রক হামাসকে সন্ত্রাসী সংগঠন ঘোষণা করলো মিশর। দেশটির একটি আদালতের এই ঘোষণায় ফিলিস্তিনসহ পুরো গাজাজুড়ে তুমুল বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। ফিলিস্তিনের স্বাধীনতার লক্ষ্যে আন্দোলনকারী দাবিদার হামাসের সামরিক শাখা আল কাসাম ব্রিগেডকে সন্ত্রাসী ঘোষণার একমাস পর শনিবার পুরো সংগঠনকেই এ আখ্যা দেওয়া হলো।

এ ঘোষণার পাশাপাশি আদালতের রায়ে মিশরীয় প্রেসিডেন্ট আবদুল ফাত্তাহ আল-সিসির মৌলবাদবিরোধী আইনানুগ অভিযান অব্যাহত রাখার নির্দেশনা দেয়া হয়। গাজা উপদ্বীপের ডি ফ্যাক্টো (কার্যত) শাসক হামাসের বিরুদ্ধে দুইটি বেসরকারি আবেদনের প্রেক্ষিতে শনিবার এই আদেশ দেয়া হয়।

হামাসের মুখপাত্র সামি আবু জুহরি একটি মুসলিম দেশের আদালতের এই রায়ের নিন্দা জানিয়ে বলেন, মিশরেরর আদালতের সিদ্ধান্ত…আমাদের স্তম্ভিত করেছে। এই রায় ফিলিস্তিনের জনগণ ও এ অঞ্চলের প্রতিরক্ষা বাহিনীকে দমিয়ে দিতে দেওয়া হয়েছে। মুস্তাফা বারঘৌতি নামে ফিলিস্তিনের এক শীর্ষ সরকারি কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেন, এই রায় অদূরদর্শী এবং এর মাধ্যমে রাজনৈতিক জটিলতা সৃষ্টি হতে পারে। তিনি বলেন, হামাস ফিলিস্তিনের জাতীয় ঐক্যবদ্ধ আন্দোলনের অংশ এবং তাদের বিরুদ্ধে এই সিদ্ধান্ত অগ্রহণযোগ্য।

এই রায়ের প্রতিবাদে শনিবারই গাজার উত্তরাঞ্চলের জাবালিয়া শরণার্থী শিবিরের লোকজন বিক্ষোভে নামে। জাবালিয়ার বিক্ষোভের পরপরই গাজার অন্যান্য অঞ্চল থেকে প্রতিবাদ মিছিলের খবর আসতে থাকে। রোববারও (১ মার্চ) এ বিক্ষোভ অব্যাহত আছে।

You Might Also Like