আইএসআইএল-কে প্রশিক্ষণ ও মানচিত্রেও স্থান দিচ্ছে ইসরাইল

ইহুদিবাদী ইসরাইল আইএসআইএল-এর মিশর ও সুদান শাখার কমান্ডারদেরকে সিনাই মরুভূমিতে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে।  ইরাকি সংসদের ‘আসসাদিকুন’ গ্রুপের মুখপাত্র ওয়াহাব তায়ি এই খবর দিয়েছেন।

 

ইসরাইলি সশস্ত্র বাহিনীর ‘গোলান’ ব্রিগেডের সদস্যরা আইএসআইএল-এর মিশর ও সুদান শাখার কমান্ডারদেরকে সিনাই মরুভূমিতে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে বলে তিনি জানান। ‘দ’য়েশ’ বা আইএসআইএল-এর মিশর ও সুদান শাখার নাম ‘দ’মেস’ (মিশর ও সুদানের ইসলামী রাষ্ট্র) রাখা হয়েছে বলে তায়ি উল্লেখ করেছেন। ইসরাইলি সশস্ত্র বাহিনী যখনই কঠিন কোনো পরিস্থিতির শিকার হয় তখনই  ‘গোলান’ ব্রিগেডকে ব্যবহার করে বলে ইরাকের এই সাংসদ জানান।

 

সম্প্রতি ইহুদিবাদী ইসরাইলের একজন শীর্ষস্থানীয় পুরোহিত বলেছেন, বিধাতাই ইসরাইলকে রক্ষার জন্য আইএসআইএল-কে পাঠিয়েছে।

 

বিশ্লেষকরা বলছেন, আইএসআইএল দখলদার ও বর্ণবাদী ইসরাইলের জন্য বৃহত্তম উপহার বা আশীর্বাদ হয়ে দেখা দিয়েছে। কারণ  মুসলমানরা আইএসআইএল-এর সঙ্গে যুদ্ধে ব্যস্ত থাকার কারণে তাদের মধ্যে অনৈক্য সৃষ্টি হয়েছে এবং ইসরাইল নিরাপদ থাকছে।

 

দুবাইয়ের পুলিশের উপপ্রধান দালহি খালফান আমিরাতের আলইত্তেহাদ দৈনিককে বলেছেন, ইহুদিবাদী ইসরাইলের পক্ষ থেকে প্রকাশিত বিশ্বের নতুন মানচিত্রে আইএসআইএল-কে একটি সরকার ও এই গোষ্ঠীর নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলকে মধ্যপ্রাচ্যের একটি নতুন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দেয়া হয়েছে।

 

আইএসআইএল-এর সঙ্গে ইহুদিবাদী ইসরাইলের ঘনিষ্ঠতা এবং পারস্পরিক সহযোগিতার বিষয়টি ক্রমেই প্রকাশ্য হয়ে উঠছে। তাজিকিস্তানের  সাপ্তাহিক ‘ফার্জ’ লিখেছে,  আইএসআইএল ইসরাইলের হাতে গড়ে উঠেছে এবং ইসরাইলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের সঙ্গে সংযুক্ত।

You Might Also Like