বস্টনে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস পালিত

শ্রদ্ধা ও ভাবগাম্ভীর্যে বস্টনে মহান একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও শহীদ দিবস পালন করেছে নিউ ইংল্যান্ড আওয়ামী লীগ। এ উপলক্ষ্যে শুক্রবার ক্যামব্রিজের এক কমুনিটি হ’লে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের সরকারী হিসাব সম্পর্কিত কমিটির সভাপতি এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ডঃ মহিউদ্দিন খান আলমগীর এমপি বলেন, একুশের অসাম্প্রদায়িক চেতনা বাঙালিকে স্বাধীনতার স্বপ্নে অনুপ্রাণিত করেছিল। আর আজ স্বাধীনতা বিরোধী ও যুদ্ধাপরাধীরা নিজেদের স্বার্থে মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করছে। বিএনপি ও জামায়াতে ইসলামী দুর্নীতির মামলা থেকে রক্ষা এবং যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচাতেই নিরীহ মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করছে। ঘরে বসে বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া নির্দেশ দেন আর নেতাকর্মীরা গাড়িতে আগুন দিয়ে মানুষ হত্যা করছে। তবে অচিরেই সন্ত্রাসের নির্দেশদাতা এবং উস্কানীদাতাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে বলে তিনি জানান।

???????????????????????????????নিউ ইংল্যান্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ইউসুফ চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ইকবাল ইউসুফের পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা ডঃ সৈয়দ আবু হাসনাত, নিউ ইংল্যান্ড আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, ডঃ আবু জালাল, প্রিতিমা রানী দেবী, আখতার কামাল জালাল, আব্দুল আজিজ, রকিবুল চৌধুরী রনি, শফিউল্লাহ মিয়াজী, আব্দুস সালাম, নিউ ইংল্যান্ড যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল হাসান, নিউ ইংল্যান্ড স্বেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি জলিল চৌধুরী প্রমুখ।

বক্তারা বলেন মাতৃভাষার জন্য জীবনদান পৃথিবীর ইতিহাসে এক অনন্য ঘটনা। বাঙালি জাতি বিশ্বকে দেখিয়ে দিয়েছে  তারা বাংলা ভাষার জন্য জীবন দিতে পারে। জাতিসংঘ একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে বাঙালি জাতিকে আরো সম্মানিত করেছে। বিএনপি-জামাত ও শিবিরের সন্ত্রাসী জঙ্গী কার্যক্রমের সমালোচনা করে তারা বলেন পেট্রোল বোমা মেরে মানুষ পুড়িয়ে যুদ্ধাপরাধী কামারুজ্জামান ও আব্দুস সোবহানকে ফাসির রায় থেকে বাঁচানো যায়নি, অন্যান্য যুদ্ধাপরাধীদের বিচারও জাতি সহসা দেখতে পাবে। বক্তারা বলেন যারা তৃতীয় শক্তির আর অগণতান্ত্রিক সরকারের কথা বলে এবং পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় যাওয়ার স্বপ্ন দেখে তারাও দেশদ্রোহী ও যুদ্ধাপরাধী, তাদেরও অবিলম্বে গ্রেফতার করে বিচার করতে হবে।

You Might Also Like