জুয়াড়িদের সঙ্গে যোগাযোগ নেই আল-আমিনের: বিসিবি

শৃঙ্খলাভঙ্গের অভিযোগে দল থেকে ছিটকে পড়ে অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফিরতে হচ্ছে আল-আমিন হোসেনকে। তবে শুধু রাতে দেরি করে হোটেলে ফেরার জন্যই এত বড় শাস্তি দেওয়া হয়েছে কি না তা নিয়ে ক্রিকেটাঙ্গনে চলছে নানা গুঞ্জন। আল-আমিনের সঙ্গে জুয়াড়িদের কোনো ‘যোগাযোগ’ হয়েছিল কি না, এমন প্রশ্নও তুলেছে ঢাকার একটি দৈনিক। তবে এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের গণমাধ্যমবিষয়ক কমিটির প্রধান জালাল ইউনুস।
গত ১৯ ফেব্র“য়ারি ব্রিসবেনে দলের নিয়মভঙ্গ করে প্রায় দুই ঘণ্টা পরে হোটেলে ফিরেছিলেন আল-আমিন। টিম ম্যানেজমেন্টের অনুমতি ছাড়াই রাত ১২টা পর্যন্ত বাইরে থাকার অভিযোগে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে এই পেসারকে। আল-আমিনের ‘রহস্যজনক’ আচরণ বাংলাদেশ দলের ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজনকে জানিয়েছে আইসিসির দুর্নীতি দমন ও নিরাপত্তাবিষয়ক ইউনিট (আকসু)।
এদিকে আল-আমিনের সঙ্গে জুয়াড়িদের যোগাযোগ থাকার দাবি করে প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে ঢাকার একটি ইংরেজি দৈনিক। তবে এই দাবির কোনো সত্যতা নেই জানিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপিকে জালাল ইউনুস বলেছেন, ‘আকসু আমাদের জানিয়েছে, আল-আমিনের বিরুদ্ধে তাদের কোনো অভিযোগ নেই। কিন্তু আমরা তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হয়েছি। কারণ দলের নির্দেশ অমান্যর প্রশ্নে আমরা কোনো আপস করব না। যেসব প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে জুয়াড়িদের সঙ্গে যোগাযোগের অভিযোগে তাকে দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে, সেগুলোর কোনো সত্যতা নেই।’
২০১৩ সালে অভিষেকের পর ছয়টি টেস্ট ও ১১টি ওয়ানডে খেলেছেন আল-আমিন। তেমন অভিজ্ঞ না হলেও ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো পারফরম্যান্স সুযোগ এনে দিয়েছিল বিশ্বকাপ দলে। কিন্তু ক্রিকেটের সেরা আসরে একটিও ম্যাচ না খেলেই অস্ট্রেলিয়া থেকে ফিরে আসছেন তিনি।

You Might Also Like