লঞ্চের অবস্থান শনাক্ত

পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌপথে ডুবে যাওয়া লঞ্চটি (এমভি মোস্তফা-৩) শনাক্ত করেছেন ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা। ২ ঘণ্টার মধ্যে এটি উদ্ধার করা সম্ভব হবে বলে আশা করছেন বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) চেয়ারম্যান ড. মো. শামছুদ্দোহা খন্দকার।

রবিবার লঞ্চ ডুবে যাওয়া স্থান পরিদর্শনকালে স্থানীয় সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

বেলা ১টার দিকে লঞ্চটি শনাক্ত করে রশি বাঁধা হয়। সেটি উদ্ধার করতে ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে বিআইডব্লিউটিএর ইনল্যান্ড ট্রাক ৮-৩৮৯। এছাড়া উদ্ধারকারী জাহাজ হামজা দুর্ঘটনাস্থলের কাছাকাছি পৌঁছবে বলে বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যান জানান।

এদিকে মানিকগঞ্জের ঘিওর ফায়ার সার্ভিস অফিসের ওয়্যার হাউজ ইন্সপেক্টর জিহাদ মিয়া জানান, ডুবে যাওয়া লঞ্চটি ৩৫ থেকে ৪০ ফুট গভীরে রয়েছে। লঞ্চের সামনের দিকটা রয়েছে নিচের দিকে।

ডুবে যাওয়া লঞ্চের মাস্টার আফজাল হোসেন জানান, লঞ্চটি পাটুরিয়া থেকে দৌলতদিয়া যাওয়ার পথে পাটুরিয়া ঘাট থেকে এক কিলোমিটার দূরে পণ্যবাহী একটি কার্গো’র ধাক্কায় ডুবে যায় এমভি মোস্তফা-৩।

অপর এক লঞ্চের সারেং হাবিবুর রহমান বলেন, রোববার বেলা পৌনে ১২টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

You Might Also Like