রজনীকান্তের সিনেমার কারণে পথের ফকির পরিবেশকরা!

পুরো ভারতে সবচেয়ে জনপ্রিয় ও সম্মানিত অভিনেতা হিসেবে মেনে নেওয়া হয় রজনীকান্তকে। তামিল সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির এই অভিনেতা ভারতের তামিল, তেলেগু, বলিউড, মারাঠি, টলিউডসহ বিভিন্ন সিনেমা ইন্ডাস্ট্রির অভিনেতাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত।

 

তামিলে রজনীকান্তকে থালাইভা বা দেবতা নামে ডাকা হয়। তবে এই থালাইভা সম্প্রতি তার নতুন সিনেমা লিঙ্গা’র কারণে বেশ কঠিন সময় পার করছেন। সিনেমাটির অপ্রত্যাশিত ব্যর্থতার কারণে সিনেমার ডিস্ট্রিবিউটররা বিরাট লোকশানের মুখে পড়েছেন, সে খবর আগেই জানা গিয়েছিল। রজনীকান্তের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণ দাবি করে তারা আন্দোলনের রাস্তায় হাঁটছেন, সেটাও পুরোনো খবর। নতুন খবর হচ্ছে, ডিস্ট্রিবিউটরদের আন্দোলনে এবার নতুন মাত্রা যোগ হয়েছে।

 

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, সিনেমাটির ব্যবসা একেবারে ভালো হয়নি। আর তাই রজনীকান্তের কাছে ৩৫ কোটি টাকা ফেরত চেয়েছিলেন ডিস্ট্রিবিউটররা। সেই দাবিতে সুপারস্টার সাড়া না দেওয়ায় এবার তারা অভিনব আন্দোলনের পথ বেছে নিয়েছেন। তারা এবার ভিক্ষার পাত্র হাতে বসবেন রজনীকান্তের বাড়ির সামনে।

 

আন্দোলন হঠাৎ জোড়দার করা প্রসঙ্গে ডিস্ট্রিবিউটররা বলেন, তারা জেনেছেন যে সিনেমাটি ইতিমধ্যেই একটি প্রোডাকশন হাউজের কাছ থেকে ১০০ কোটি টাকা পেয়েছে। তারা বলেন, তাদের বিপুল ক্ষতির দায় বাকিদেরও নেওয়া উচিত বলেই তারা মনে করেন।

 

এক ডিস্ট্রিবিউটর জানান, ‘গত মাসে ঠিক করা হয়েছিল তাদের বিপুল ক্ষতির কিছুটা পূরণ করা হবে। আর সেজন্য রজনীকান্ত স্যার তার বন্ধু তিরুপুর সুব্রহ্মণিয়মকে নিযুক্ত করেন। তিনি নিজেও একজন ডিস্ট্রিবিউটর। তিনি আমাদের ক্ষতির অঙ্কের পরিমাণটা হিসাব করেছিলেন। তারপরেও প্রযোজক আমাদের ক্ষতির ৩৫ কোটি টাকা দিতে অস্বীকার করেছেন।’

 

তার বক্তব্য অবশ্য এখানেই শেষ নয়। তার প্রশ্ন, ‘যে টাকাটা আমাদের ক্ষতিপূরণ হিসেবে চাইছি, তার পরিমাণ সিনেমায় রজনীকান্ত স্যারের পারিশ্রমিকের তুলনায় অনেক কম। ওই প্রযোজনা সংস্থাটা যদি সত্যিই সিনেমার জন্য এত টাকা দিয়ে থাকে, তাহলে প্রযোজক কেন আমাদের প্রাপ্য টাকা দিতে চাইছেন না, তা একটা রহস্য। তা ছাড়া প্রযোজক নিজেই যখন বলেছেন, সিনেমাটি এনথিরান সিনেমার চেয়েও অনেক বেশি ব্যবসা করেছে। তাহলে শুধু আমরাই কেন ক্ষতির মুখে পড়ে থাকব?’

 

ডিস্ট্রিবিউটররা এর আগে অনশন আন্দোলনেও বসেছিলেন। তখন প্রযোজক বলেছিলেন ১০ শতাংশ টাকা দেওয়া হবে। কিন্তু ডিস্ট্রিবিউটররা তাতে রাজি হননি। আর এবার তারা ভিক্ষা-আন্দোলনের রাস্তায় হাঁটছেন। সব ডিস্ট্রিবিউটররা একযোগে সুপারস্টারের বাড়ির সামনে ভিক্ষার পাত্র হাতে নিয়ে বসবেন বলে জানা গেছে।

 

‘ওরা আমাদের বাধ্য করলেন ভিক্ষার থালা হাতে বসতে। আর আমাদেরও হাতে অন্য কোনো রাস্তা নেই। তাই এই রাস্তাতেই হাঁটব’, মন্তব্য এক আন্দোলনকারীর।

You Might Also Like