মঙ্গলের আকাশে রহস্যজনক মেঘ!

বছরের পর বছর ধরে বিজ্ঞানীরা গবেষণা চালিয়ে আসছেন মানুষের বসবাসের জন্য পৃথিবীর বিকল্প গ্রহের সন্ধানে। আর সেই সন্ধানের তালিকায় প্রথমেই যে গ্রহটিকে গুরুত্ব দিচ্ছেন বিজ্ঞানীরা, তা হল লাল গ্রহ হিসেবে পরিচিত মঙ্গল গ্রহ।

 

বহু বছর ধরেই অক্লান্ত গবেষণা আর একের পর এক অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে মঙ্গল গ্রহ নিয়ে। উদ্দেশ্য একটাই, প্রাণের সন্ধান। কেননা ২০২৪ সালের মধ্যেই গ্রহটিতে মানুষ পাঠাতে চান বিজ্ঞানীরা।

 

সম্প্রতি এই গ্রহটি নিয়ে তৈরি হয়েছে নতুন এক রহস্য। আর লাল গ্রহের নতুন রহস্যেটির কিনারা কিছুতেই করে উঠতে পারছেন না মহাকাশ বিজ্ঞানীরা।

 

রহস্যটি হল, বিশালাকৃতির একটি মেঘ। নিকষ কালো মেঘ জমাট বেঁধেছে মঙ্গলের আকাশে। যেন একটা বড় অংশ জুড়ে পরমাণু বিস্ফোরণ অথবা হঠাৎ জেগে ওঠা আগ্নেয়গিরির লাভার ধোঁয়া। মেঘটি অনেকটা বিধ্বংসী ঝড় টর্নেডোর মেঘের মতো। লাল গ্রহের একটি অংশ জুড়ে সৃষ্টি হওয়া বিশালাকৃতির এই মেঘ রীতিমতো চিন্তায় ফেলে দিয়েছে বিজ্ঞানীদের।

 

ইউরোপিয়ান স্পেস এজেন্সির বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, মাত্র ১০ ঘণ্টায় এই মেঘ তৈরি হয়েছে। ৫ লাখ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে বিস্তার করেছে বিশাল কালো মেঘটি। এবং প্রত্যেক দিনই বিভিন্ন আকার ধারণ করছে।

 

২০১২ সালেও এই ধরনের মেঘ তৈরি হয়েছিল মঙ্গলে। তবে তার বিস্তার ছিল ১০০ কিলোমিটার। এবার ৫ লাখ কিলোমিটার! কিন্তু কেন এই মেঘ, সেই রহস্য নিয়ে চিন্তায় পড়েছেন বিজ্ঞানীরা।

 

তথ্যসূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

You Might Also Like