বেআইনি আদেশ পালন করবেন না: ড.কামাল

সংবিধানের অন্যতম প্রণেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে বেআইনি আদেশ পালন থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, সরকারে যারা দায়িত্ব পালন করছেন তাদের সংবিধান মানতে হবে। সংবিধানের ঊর্ধ্বে তারা থাকতে পারেন না। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে সংবিধান মেনে চলতে হবে। দায়িত্ব পালন করার সময় বেআইনি আদেশ পালন থেকে বিরত থাকতে হবে। বিশেষ করে যারা মাঠে বা মাঠের বাইরে দায়িত্ব পালন করছেন তাদের এ বিষয়ে ভূমিকা রাখতে হবে।

গতকাল বিকালে রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে নাগরিক ঐক্যের অবস্থান কর্মসূচিতে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সহিংসতা বন্ধ ও শান্তির জন্য জাতীয় সংলাপের দাবিতে নাগরিক ঐক্য এ কর্মসূচি পালন করে।

ড. কামাল বলেন, সংবিধানে বোমাবাজির কোন জায়গা নেই। বিনা বিচারে হত্যার কোন বিধান নেই। সরকারে যারা থাকে তাদের বেআইনি কাজে প্রশ্রয় দেয়ার কোন সুযোগ নেই। বেআইনি কাজ করে, অসাংবিধানিক কাজ করে, কেউ পার পায় না। এটা হলো বাংলার মানুষের বৈশিষ্ট্য। চালাকি করে কেউ শেষ পর্যন্ত পার পায় না।

জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানিয়ে ড. কামাল বলেন, আমাদের যে উজ্জ্বল ভাবমূর্তি আছে সেটা ধ্বংস হতে দেয়া যায় না। কতিপয় লোকের ক্ষমতায় থাকার আর ক্ষমতায় যাওয়ার মধ্যে দেশের ভাবমূর্তি নষ্ট হোক-এটা কেউ চায় না। এজন্য সবাই মিলে শান্তির জন্য ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। সংঘাত-সংঘর্ষের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। যে বা যারা তাদের কার্যকলাপের মাধ্যমে স্বাভাবিক অবস্থাকে অস্বাভাবিক করে, আমরা তাদের বলতে চাই স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনার জন্য ১৬ কোটি মানুষকে উঠেপড়ে লাগতে হবে। জেলায় জেলায়, থানায় থানায় সমাবেশ করে এ দাবি জানাতে হবে।

সরকার ‘সংলাপ’ শব্দটিকে বিতর্কিত করার চেষ্টা করছে দাবি করে সংবিধানের এই প্রণেতা বলেন, ২০০৭ সালে সংস্কার শব্দটিকে খারাপ বলা হতো। এখন সংলাপ শব্দটিকে খারাপ শব্দ বলার অপচেষ্টা চলছে। সংস্কার ও সংলাপ খারাপ শব্দ হতে পারে না। সত্যিকার অর্থে কার্যকর গণতন্ত্র চাইলে বিভিন্ন ধরনের সংস্কার করতে হবে। শান্তির জন্য সংলাপের আয়োজন করতে হবে। জনগণ ক্ষমতার মালিক অথচ কিন্তু তাদের কথা না শুনলে তাকে কিভাবে মূল্যায়ন করা যায়।

You Might Also Like