দেশ অচল করার হুমকি বিজিএমইএ সভাপতির

পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে দেশ অচল করার মতো কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে হুমকি দিয়েছেন পোশাক প্রস্তুত ও রপ্তানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএ-এর সভাপতি মো. আতিকুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ‘এভাবে চলতে থাকলে আমাদের পথে বসতে হবে। শ্রমিকদের বেতন দিতে পারব না। ফলে তাদের না খেয়ে থাকতে হবে। তাই অবিলম্বে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে রাজনীতিকদের প্রতি আহ্বান জানাই। তা না হলে শ্রমিকদের সঙ্গে নিয়ে দেশ অচল করে দেওয়া হবে।’

বিজিএমইএ ভবনের সামনে শনিবার সকাল থেকে শুরু হওয়া প্রতীকী অনশনের শেষ দিকে বিকেলে এসব কথা বলেন মো. আতিকুল ইসলাম।

বিজিএমইএ সভাপতি আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘আজকে দেশের এমন পরিস্থিতির কারণে বিদেশিরা চলে গেলে কাদের ক্ষতি হবে। এ দেশের ক্ষতি হবে। এ দেশের মানুষের ক্ষতি হবে। আমরা ব্যবসা করতে চাই। স্বাভাবিকভাবে ব্যবসা করতে না পারলে আমরাও মাঠে নামব। বৃহত্তর আন্দোলনের ডাক দেব। ব্যবসা বন্ধ হয়ে গেলে এর দায় কে নেবে? আমরা আর কোনো বোমাবাজি চাই না।’

এর পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক তাদের অনশন ভাঙান।

অনশনের আয়োজন করে বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস অ্যাসোসিয়েশন (বিটিএমএ), বাংলাদেশ নিট ম্যানুফ্যাকচারার অ্যাসোসিয়েশন (বিকিএমইএ) ও বিজিএমইএ।

অনশন কর্মসূচিতে উপস্থিত থেকে আরো বক্তব্য রাখেন ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি কাজী আকরাম উদ্দীন আহমেদ, বিজিএমইএ সহসভাপতি শহিদুল্লাহ আজিম, দ্বিতীয় সহসভাপতি রিয়াজ বিন মাহমুদ, এম এ মান্নান কচি, ঢাকা চেম্বারের প্রাক্তন সভাপতি আসিফ ইব্রাহিম, বিকেএমইএ-এর ভারপ্রাপ্ত সহসভাপতি আসলাম সানি, বিটিএমইএ-এর সভাপতি তপন চৌধুরী, বিজিএমইএ-এর প্রাক্তন সভাপতি মোস্তফা গোলাম কুদ্দুস, প্লাস্টিক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি জসিম উদ্দীন ও অন্যান্য ব্যবসায়ী সংগঠনের নেতাসহ বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

You Might Also Like