দেশব্যাপী ৭২ ঘণ্টার হরতাল ডেকেছে ২০ দল

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার গুলশানস্থ কার্যালয় উড়িয়ে দেয়া ও তাকে গ্রেফতারের মুহুর্মুহু হুমকিসহ প্রায় ১৮টি বিষয়ের প্রতিবাদে দেশব্যাপী ৭২ ঘণ্টার হরতাল ডেকেছে ২০ দলীয় জোট।

শুক্রবার বিকেল ৫টা ২৫ মিনিটের দিকে গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ হরতালের কথা জানানো হয়।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব এডভোকেট রহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়-আগামী রবি, সোম ও মঙ্গলবার অর্থাৎ ১লা ফেব্রুয়ারি ভোর ৬টা থেকে ৪ ফেব্রুয়ারি বুধবার ভোর ৬টা পর্যন্ত ২০ দলীয় জোটের উদ্যোগে ঢাকাসহ দেশব্যাপী ৭২ ঘণ্টার সর্বাত্মক হরতাল পালিত হবে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আওয়ামী লীগ নেতাদের কর্তৃক বিএনপি চেয়ারপারসন ও ২০ দলীয় জোট নেতা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার গুলশানস্থ কার্যালয় উড়িয়ে দেয়া ও বিএনপি চেয়ারপারসনকে গ্রেফতারের মুহুর্মুহু হুমকির প্রতিবাদে, চলমান আন্দোলন দমনে পুলিশকে যেকোনো পদক্ষেপ নিতে নির্দেশ দিয়ে প্রধানমন্ত্রী নিজে দায়িত্ব নিবেন বলে যে আতঙ্ক ও উদ্বেগজনক বক্তব্য রেখেছেন তার প্রতিবাদে, সরকারের মদদে বিএনপির জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. আবদুল মঈন খানের বাসায় গুলি ও তরিকুল ইসলাম সাহেবের বাসায় বোমা নিক্ষেপ, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য এডভোকেট খন্দকার মাহবুব হোসেন, আবদুল আউয়াল মিন্টু এবং বিশিষ্ট সাংবাদিক শফিক রেহমানের বাসায় বোমা নিক্ষেপ, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য রিয়াজ রহমানকে হত্যা করার উদ্দেশ্যে গুলি করে গুরুতর জখম করা ও তার গাড়িতে অগ্নিসংযোগ এবং আরেক উপদেষ্টা সাবিহ উদ্দিন আহমেদের গাড়িতে অগ্নিসংযোগের প্রতিবাদে, অবরোধ কর্মসূচি চলাকালে প্রায় ২১ জন নেতা-কর্মীকে সরাসরি গুলি করে হত্যা এবং ক্রসফায়ার ও বন্দুকযুদ্ধের নামে হত্যার প্রতিবাদে সারাদেশে ১৫ হাজারের অধিক বিএনপি ও জোটের নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার এবং দেশব্যাপী নেতা-কর্মীদের বিরুদ্ধে প্রায় দেড় লক্ষাধিক মিথ্যা মামলা দায়েরের প্রতিবাদে, সারাদেশে বিএনপি ও জোটের নেতা-কর্মীদের বাড়িতে যৌথবাহিনীর আক্রমণ এবং কাঙ্ক্ষিত ব্যক্তিকে না পেয়ে বাড়ির লোকজনের সাথে দুর্ব্যবহারসহ বাড়ির নিরীহ লোকজনকে আটক ও বাড়িঘরের জিনিসপত্র লুটপাটের প্রতিবাদে এবং সরকারি এজেন্ট দিয়ে পেট্রলবোমা নিক্ষেপ করে সাধারণ মানুষকে পুড়িয়ে হত্যা করে নাশকতা সৃষ্টি করার পর এর দায় আন্দোলনকারীদের ওপর চাপানোর প্রতিবাদে এ হরতাল আহবান করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, গণতন্ত্র ও ভোটের অধিকার ফিরে পাওয়ার জন্য চলমান আন্দোলনের অংশ হিসেবে বিএনপি এবং ২০ দলীয় জোটের সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীসহ দেশবাসীকে শান্তিপূর্ণ ও স্বত:স্ফূর্তভাবে ৭২ ঘণ্টার হরতাল পালনের জন্য আহবান জানানো হলো।

You Might Also Like