বিশ্ববিদ্যালয়ে পর্নো ছবি তৈরি : ছাত্রী গ্রেফতার

বিশ্ববিদ্যালয়ের লাইব্রেরিতে পর্নো ছবি তৈরি করে তোলাপাড় ফেলে দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের বিখ্যাত ওরেগন বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী। ১৯ বছর বয়সি এই ছাত্রীর নাম কেনড্রা সুনডারল্যান্ড।

 

তিন দিন আগে বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘ভ্যালি লাইব্রেরি’ নামক লাইব্রেরি ফাঁকা পেয়ে নিজের পর্নো ভিডিও ধারণ করেন কেনড্রা। ৩১ মিনিটের ওই ভিডিও নিজেই পোস্ট করেন ইউটিউবে। দুদিন পার না হতেই প্রায় আড়াই লাখ (২ লাখ ৬০ হাজার) বার দেখা হয়েছে ভিডিওটি।

 

এই ভিডিও নিয়ে ওরেগন বিশ্ববিদ্যালয়ে রীতিমতো হৈ চৈ পড়ে গেছে। বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

 

এদিকে ওরেগনের আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর চোখে পড়ে কেনড্রার ওই ভিডিও। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমগুলোকে চিঠি দিয়ে তা সরিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে। ততক্ষণে ভিডিওটি ছড়িয়ে গেছে অনলাইনে।

 

অন্যদিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভ্যালি লাইব্রেরিতে পর্নো ভিডিও ধারণ করায় কেনড্রাকে গ্রেফতার করে পুলিশ। তার নামে মামলা হয়েছে। মামলা গ্রহণের পরে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এখন বিচারে দোষী সাব্যস্ত হলে তাকে সাজা ভোগ করতে হবে।

 

কিন্তু কীভাবে কেনড্রা ওই ভিডিও ধারণ করল তা নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়েছে লাইব্রেরি কর্তৃপক্ষ। ভ্যালি লাইব্রেরির ৩৪ হাজার স্কয়ার ফুট প্রশস্ত পঞ্চম তলায় প্রতি সপ্তাহে প্রায় ৩০ হাজার শিক্ষার্থী পড়তে আসে। এত ভিড়ের মধ্যে প্রায় আধা ঘণ্টা ধরে পর্নো ভিডিও ধারণ করা নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছে ওরেগন স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন। বিষয়টি তারা তদন্ত করছেন।

 

তথ্যসূত্র : ডেইলি মেইল

You Might Also Like