সমাজকল্যাণমন্ত্রীর শাস্তি চায় ইসলামি দল সমূহ

ইসলামের ফরজ বিধান ‘পর্দা তথা বোরকা নিয়ে কটাক্ষ করায় সমাজকল্যাণমন্ত্রী মহসিন আলীর সর্বোচ্চ শাস্তির দাবি জানিয়েছে সম্মিলিত ইসলামি দলসমূহ।
শুক্রবার এক বিবৃতিতে ইসলামি দলসমূহের নেতৃবৃন্দ এ দাবি জানান।
যৌথ বিবৃতিতে শীর্ষ ইসলামি নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করেন, ‘সরকারই মুরতাদ লতিফ-মহসীন আলী গংদের আস্কারা দিচ্ছে। স্বঘোষিত মুরতাদচক্র একের পর এক ইসলাম ও ইসলামি বিধানের বিরুদ্ধে বিশোধগার করেই চলেছে। অদ্যাবধি তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি না হওয়ায় স্বঘোষিত মুরতাদগংদের দৌরাত্ম বেড়েই চলেছে।
এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার সমাজকল্যাণমন্ত্রী মহসীন আলী ইসলামের ফরজ বিধান ‘বোরকা ও পর্দা’ নিয়ে কটাক্ষ করে ইসলামের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে।
ইতিপূর্বেও তিনি ইসলাম, ইসলামি শিক্ষার বিরুদ্ধে অবস্থান ও পতিতাদের পক্ষ নিয়ে মুসলিম উম্মাহর কলিজায় আগুন দিয়েছেন।
তারা বলেন, সরকার যদি এখনি এ সমস্ত দুষ্টুচক্র ও মুরতাদ গংদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির ব্যবস্থা না করে তাহলে এরা দেশ, জাতি ও ইসলামের মহাসর্বনাশ করবে। তাই সরকারকে সংসদের চলতি অধিবেশনেই স্বঘোষিত ধর্মদ্রোহী, কুলাঙ্গার লতিফ সিদ্দিকী ও মহসীন আলীসহ সকল মুরতাদ ও ধর্মদ্রোহীদের সর্বোচ্চ শাস্তির আইন পাশ করতে হবে।
নেতৃবৃন্দ বলেন, চলমান রাজনৈতিক অস্থিরতা, হানাহানি ও নৈরাজ্যকর পরিস্থিতিকে ভয়াবহ করতে উক্ত দুষ্টুচক্র বেশামাল হয়ে পড়েছে।
বিবৃতিতে স্বাক্ষর করেন- জমিয়তে উলামায়ে ইসলামের সভাপতি শাইখ আবদুল মোমিন, শীর্ষ আলেমে দ্বীন রাবেতা আলম আল-ইসলামীর স্থায়ী সদস্য ও সম্মিলিত উলামা মাশায়েখ পরিষদের সভাপিত মাওলানা মুহিউদ্দীন খান, মাও. মোহাম্মাদ ইসহাক, মাওলানা আব্দুল লতিফ নেজামী, অধ্যক্ষ মাওলানা যাইনুল আবেদীন, মাওলানা জাফরুল্লাহ খান, মাওলানা মহিউদ্দীন রব্বানী, ড. মাওলানা খলিলুর রহমান মাদানী, ইসলামিক পার্টির চেয়ারম্যান এডভোকেট আবদুল মোবিন, মুসলিম লীগের মহাসচিব কাজী আবুল খায়ের, শাহতলীর পীর মাও. আবুল বাসার, ফরায়েজী আন্দোলনের আমির মাওলানা আব্দুল্লাহ মো. হাসান, ইসলামী কানুন বাস্তবায়ন পরিষদের আমির মাওলানা আবু তাহের জিহাদী, হক্কানী পীর মাশায়েখ পরিষদের মহাসচিব মাও. শাহ আরিফ বিল্লাহ সিদ্দিকী, মীরের সরাইর পীর সাহেব মাও. আ. মোমেন নাছেরী, টেকের হাটের পীর মাও. কামরুল ইসলাম সাঈদ আনসারী, খেলাফত যুব আন্দোলনের আমির মুফতি ফখরুল ইসলামসহ শতাধিক শীর্ষ আলেম।

You Might Also Like