সড়ক নিরাপত্তায় ১২ হাজার আনসার

বিএনপি-জামায়াতের অবরোধ-হরতালে সড়ক-মহাসড়কে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড ও নাশকতা ঠেকাতে আগামীকাল (শুক্রবার) থেকে দেশের ৯৯৩টি পয়েন্টে ১২ হাজার আনসার সদস্য মোতায়েন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে মহাসড়ক, নৌপথ এবং রেলপথে যাত্রী ও পণ্য পরিবহন নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন করার লক্ষ্যে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

মন্ত্রী বলেন, ‘সভায় রেল, নৌ ও সড়ক পথে নিরাপত্তা বৃদ্ধির বিষয়ে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে আগামীকাল শুক্রবার সড়ক পথে দেশের ২১৬টি পয়েন্টে আনসার বাহিনী মোতায়েন করা হবে। পর্যায়ক্রমে দেশের সড়ক-মহাসড়কের ৯৯৩টি গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্টে ১২ হাজার আনসার সদস্য মোতায়েন থাকবে।’

জনমনে বিরাজ করা আতঙ্ক দুর করতেই এ ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে- উল্লেখ করে, ওবায়দুল কাদের জানান, ‘জনমনের আতঙ্ক কাটাতে এমপি থেকে শুরু করে ইউনিয়ন পরিষদ মেম্বরসহ জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয়ে জনসচেতনতামূলক প্রচারণা চালানো হবে। এ প্রচারণায় নাশকতা ও সহিংসতার আগুন নিভে যাবে এবং তাদের বিরুদ্ধে ঘৃণার আগুন জ্বলে উঠবে।’

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) বরাত দিয়ে তিনি আরো বলেন, ‘সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডে ৩২৫টি গাড়িতে আগুন দেওয়া হয়েছে, ভাঙচুর করা হয়েছে ৫০০টির বেশি। এসব ঘটনায় অগ্নিদগ্ধ হয়ে পরিবহন শ্রমিক মারা গেছেন ১৫ জন এবং চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছেন ৬৫ জন।’

সভায় নৌপরিবহন মন্ত্রী শাহজাহান খান, রেলপথ মন্ত্রী মুজিবুল হক, স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান ও স্থানীয় সরকার প্রতিমন্ত্রী মসিউর রহমান রাঙ্গা উপস্থিত ছিলেন।

এ ছাড়া স্থানীয় সরকার সচিব মনজুর হোসেন, স্বরাষ্ট্র সচিব মোজাম্মেল হক খান, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সচিব এম এ এন ছিদ্দিক, পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) শহিদুল হক, র্যা বের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ এবং বিভিন্ন আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাবাহিনীর প্রতিনিধিরাও এতে উপস্থিত ছিলেন।

You Might Also Like