হৃদয় ও ম্যাজিস্ট্রেট কাদেরের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী

২০ দলীয় জোটের অবরোধে বোমা বিস্ফোরণে গুরুতর আহত ফেনীর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (এনডিসি) আবদুল কাদের মিয়া ও ফেনী সরকারি পাইলট হাই স্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থী শাহরিয়ার হৃদয়ের চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেসসচিব আশরাফুল আলম খোকন সোমবার এই তথ্য জানান। খবর: বাসসের।

আশরাফুল আলম খোকন বলেন, ম্যাজিস্ট্রেট আবদুল কাদের ও শাহরিয়ার হৃদয়ের চিকিৎসার সব ধরনের ব্যবস্থা নিতে প্রধানমন্ত্রী তার কার্যালয়ের পরিচালক ডা. জুলফিকার লেলিনকে নির্দেশ দিয়েছেন। তারা ফেনী শহরে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০দলীয় জোট আহুত অবরোধকালে বোমায় গুরুতর আহত হন।

শাহরিয়ার হৃদয় ফেনীর স্থানীয় একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তাকে জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটে আনা হয়েছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেসসচিব।

ম্যাজিস্ট্রেট আবদুল কাদের মিয়া ইতোমধ্যে জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

আশরাফুল আলম খোকন বলেন, চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনে আহতদের বিদেশ নেওয়ার কথাও বলেছেন প্রধানমন্ত্রী।
এর আগে রবিবার শাহরিয়ার হৃদয়ের সঙ্গে ককটেলে আহত মিনহাজুল ইসসলাম অনিকেরও চিকিৎসার দায়িত্ব নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। চিকিৎসার জন্য অনিককেও বিদেশ পাঠাতে বলেছেন তিনি।

গত ৯ জানুয়ারি শুক্রবার রাতে বিজিবির একটি টহল দলের সঙ্গে ছিলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবদুল কাদের মিয়া। তাদের গাড়ি শহরের এসএসকে সড়কের জহিরিয়া মসজিদের কাছে পৌঁছলে সেখানে অবরোধকারীরা গাড়ি লক্ষ্য করে কয়েকটি বোমা নিক্ষেপ করে। এতে ম্যাজিষ্ট্রেট আবদুল কাদের মিয়া গুরুতর আহত হন।

এদিকে ৫ জানুয়ারি সোমবার বিকেলে ফেনী শহরের খেজুর চত্বরে দুর্বৃত্তদের ছোড়া বোমার আঘাতে ফেনী সরকারি পাইলট হাই স্কুলের এসএসসি পরীক্ষার্থী মিনহাজুল ইসলাম অনিক (১৫) ও শাহরিয়ার হৃদয় (১৬) গুরুতর আহত হন। তারা প্রাইভেট পড়া শেষে রিকশায় বাসায় ফেরার পথে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় অনিক ও হৃদয়ের চোখ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়।

You Might Also Like