বিহারে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষ: ৩ জনকে পুড়িয়ে হত্যা

ভারতের বিহার রাজ্যে দুই গোষ্ঠীর মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় আগুনে পুড়ে তিন জন মারা গেছেন। বিহারের মুজজফরপুর জেলায় রোববার এই ঘটনায় ৫ জন অগ্নিদগ্ধ হয়। দু জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

 

রোববার বিকেলে একদল উন্মত্ত জনতা একটি গ্রামের ২৫টি ঝুপড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে মানুষজন অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারাত্মকভাবে আহত হয়। এই ঘটনায় ১০ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সরকার নিহতদের পরিবারকে ৫ লাখ টাকা এবং আহতদের ৫০ হাজার টাকা করে আর্থিক সহায়তা দেয়ার কথা ঘোষণা করেছে।

 

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বিহারের রাজধানী পাটনা থেকে প্রায় ৫৫ কিলোমিটার দূরে বহিলওয়াড়া গ্রামে পুরনো বিবাদকে নিয়ে এই সংঘর্ষ হয়। পুলিশের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, কিছুদিন আগে পাশের একটি গ্রামের একজন দলিত যুবক সংখ্যালঘু  সম্প্রদায়ের একটি মেয়েকে নিয়ে পালিয়ে যায়। রোববার  গ্রামের পাশে ওই যুবকের মৃতদেহ পাওয়া গেলে ব্যাপক উত্তেজনা শুরু হয়। এতে উন্মত্ত গ্রামবাসীরা ওই মেয়েটির গ্রামে আক্রমণ চালিয়ে বাড়িঘরে আগুন ধরিয়ে দেয়।

 

বিহার পুলিশের অতিরিক্ত মহানির্দেশক (এডিজি) গুপ্তেশ্বর পাণ্ডে জানান, এখানকার পরিস্থিতি উত্তেজনাপূর্ণ হলেও নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এখানে কোনোরকম কারফিউ জারি করা হয়নি। জেলা পুলিশের সমস্ত কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে উপস্থিত রয়েছেন। পুলিশ গ্রামে হামলা চালানোর দায়ে অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে।

You Might Also Like