ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন যে সেলিব্রেটিরা

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে প্রতি বছর ২ লাখ ৩৭ হাজার ৮৬৮ নারী যৌন হয়রাণি ও ধর্ষণের শিকার হয়ে থাকেন। অনেক তারকাই এ ধরনের অভিজ্ঞতার মুখোমুখি হয়েছেন। অনেকের গোপন ও বিতর্কিত এ অধ্যায় আড়ালে থাকলেও নিজের একান্ত বিষয় নিয়ে সত্য কথা প্রকাশ করেছেন অনেকেই। এখানে জানুন এমন কয়েকজন সেলিব্রিটির কথা যারা জীবনে কোনো না কোনো সময় ধর্ষিত হয়েছিলেন এবং খোলামেলা তা স্বীকারও করেছেন।

পামেলা অ্যান্ডারসন
এক চ্যারিটি অনুষ্ঠানে জনপ্রিয় তারকা পামেলা অ্যান্ডারসন ধর্ষণের ভয়ংকর অভিজ্ঞতার বর্ণনা দেন। বাবা-মায়ের বাধ্য সন্তান ছিলেন তিনি। মাত্র ১২ বছর বয়সে গ্যাং রেপের শিকার হন এই তারকা।

ম্যাডোনা
এ তালিকায় আছেন মেগা স্টার ম্যাডোনা। নিউ ইয়র্কে যখন আসেন, তখন শহরটি তাকে বুকে টেনে নেয়। কিন্তু এর সবকিছু ভালো ছিল না। পিঠে ছুরি ধরে ছাদে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করা হয় তাকে।

লেডি গাগা
পপ স্টার লেডি গাগা স্পষ্টভাবে বলেছিলেন যে তিনি ১৯ বছর বয়সে ধর্ষিত হয়েছিলেন। হাওয়ার্ড স্টার্নের রেডিও শো-তে এ কথা স্বীকার করেন ২৮ বছর বয়সী এই তারকা। ওই ঘটনার পর তাকে দৈহিক ও মানসিক সুস্থতার জন্য চিকিৎসাও নিতে হয়েছে।

শিয়া লিবিউফ
দ্য ফিউরি অভিনেতা শিয়া লিবিউফকে ধর্ষণ করেছেন এক নারী। লস অ্যাঞ্জেলস গ্যালারিতে চলছে একটি আর্ট শো। সেখানেই তিনি জানিয়েছেন যে, এ বছরের ভ্যালেন্টাইন ডে-তে এক নারী তাকে ধর্ষণ করেন।

ক্যাটি প্রাইস
ব্রিটিশ মডেল ক্যাটি প্রাইসও এই ভয়ংকর অভিজ্ঞতা পেয়েছেন। এক আগন্তুক তাকে ধর্ষণ করেছিলেন। এ কথা শিকার করেছেন ফিউবার রেডিও স্টেশনের একটি অনুষ্ঠানে। তখন তার বয়স মাত্র সাত। তবে কে তাকে ধর্ষণ করেছিল তা তার খেয়াল নেই। ওই মানুষটিও কত বয়সের ছিল তা জানা নেই তার।

অপরাহ উইনফ্রে
অপরাহ উইনফ্রের মনে নেই বয়স কত ছিল, তবে ১০ থেকে ১৪ বছর বয়সের মাঝে তাকে ধর্ষণ করা হয়েছিল। এক অনুষ্ঠানে ডেভিড ল্যাটারম্যানের সঙ্গে কথা বলার সময় এসব কথা বলেন তিনি।

টেরি হ্যাচার
ডেসপারেট হাউজওয়াইভস তারকা টেরি হ্যাচার মাত্র ৫ বছর বয়সে যৌন নির্যাতনের শিকার হওয়ার কথা জানান। তাকে ধর্ষণ করেছিলেন তারই আঙ্কেল।

You Might Also Like