স্বামীর লিঙ্গ কেটে প্রতারিত স্ত্রীর প্রতিশোধ

স্বামীর প্রতারণার পর এক স্ত্রী এতোটাই ক্ষুব্ধ হয়েছেন যে তিনি তার পুরুষাঙ্গ দু’বার কেটে দিয়েছেন।
স্ত্রী ফেং লাং যখন দেখতে পান যে তার স্বামী তারই মোবাইল ফোন থেকে তার তরুণী এক প্রেমিকাকে একটি ‘রসালো ইমেল’ পাঠিয়েছেন তখন তার প্রতিশোধ হিসেবে তিনি এ কাজ করেছেন।
আক্রান্ত স্বামী স্ত্রীর মোবাইল ফোনে তার ইমেল অ্যাকাউন্ট থেকে লগ আউট করতে ভুলে গিয়েছিলেন।
ইমেল দেখার পর ক্রুদ্ধ স্ত্রী একজোড়া কাঁচি নিয়ে শোওয়ার রুমে ঢুকে ৩২ বছর বয়সী স্বামীর লিঙ্গ কেটে দেন।
সেসময় তিনি ঘুমাচ্ছিলেন।
লন্ডন থেকে প্রকাশিত একটি পত্রিকা ‘মেট্রো’ এই খবর দিয়েছে। পত্রিকাটি বলছে, চীনের হেন প্রদেশের একটি শহরে এই ঘটনা ঘটেছে।
তার পরপরই স্বামী ফ্যানকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ডাক্তাররা তখন জটিল ও স্পর্শকতার একটি অপারেশন করে তার পুরুষাঙ্গ আবার জোড়া দেন।
কিন্তু স্ত্রী তখনও এতোটা ক্রুদ্ধ ছিলেন যে হাসপাতালের কক্ষে ঢুকে আবারও পুরুষাঙ্গ কেটে সেটাকে জানালা দিয়ে বাইরে ছুঁড়ে মারেন।
নগ্ন এবং রক্তাক্ত স্বামী সেই অবস্থায় হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে স্ত্রীর সাথে ঝগড়া এবং এক পর্যায়ে মারামারি করতে শুরু করেন।
হাসপাতালের মুখপাত্র জানিয়েছেন যে কেউ একজন এসে হাসপাতালের রিসেপশনে রিপোর্ট করেছেন যে নগ্ন এক পুরুষ বাইরে এক মহিলাকে মারধর করছে।
পরে হাসপাতালের স্টাফ গিয়ে তাকে সেখান থেকে নিয়ে আসেন।
ডাক্তাররা তখন দেখতে পান যে তার স্ত্রী পুরুষাঙ্গ আবারও কেটে দিয়েছে।
ডাক্তার ও পুলিশ মিলে সেখানে পুরুষাঙ্গের টুকরোটির খোঁজ করেন কিন্তু সেটা আর পাওয়া যায়নি।
তাদের ধারণা বেওয়ারিশ কোনো কুকুর বা বিড়াল হয়তো টুকরোটি নিয়ে গেছে।
স্বামীর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল কিন্তু তিনি মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন।
স্ত্রীকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে।
অন্যদিকে লিঙ্গ কেটে ফেলার পরেও তাকে বিয়ে করতে রাজি তার প্রেমিকা। বিবিসি

You Might Also Like