বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া ভারতের গ্রামে মাটির নিচে অস্ত্র কারখানা!

বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া ভারতের গ্রামে মাটির নিচে বেআইনি অস্ত্র কারখানার হদিশ পেল পুলিশ। জ্বালানি কাঠের স্তূপ সরাতেই বেরিয়ে পড়ল বিপুল অস্ত্রভাণ্ডার! উদ্ধার হল প্রচুর আগ্নেয়াস্ত্র।

 

শনিবার রাতে বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া মালদার কালিয়াচকের খাসচাঁদপুরে অভিযান চালায় পুলিশ। তাদের দাবি, একটি বাড়ির পাশে ফাঁকা জায়গায় মাটিতে গর্ত করে অস্থায়ী ঘর তৈরি করা হয়েছিল। ভেতরে চলত অস্ত্র তৈরির কাজ। গ্রামবাসীদের চোখে ধুলো দিতে গর্তের ওপর ছাউনি দিয়ে, সেখানে জ্বালানি কাঠ বোঝাই করে রাখা হয়েছিল।

 

বাড়ির মালিকসহ আটক অন্য ব্যক্তিটি মুঙ্গেরের বাসিন্দা। নাম নজরুল ইসলাম। উদ্ধার হয়েছে পাইপগান, নাইন এমএম পিস্তলসহ প্রচুর আগ্নেয়াস্ত্র ও যন্ত্রাংশ।

 

পুলিশ সূত্রে খবর, মুঙ্গের থেকে কারিগর এনে এই কারখানায় রেখে দেওয়া হত। প্রতিটি আগ্নেয়াস্ত্র তৈরির জন্য তাদের এক হাজার টাকা করে দেওয়া হত।

 

পুলিশ সূত্রে খবর, তদন্তে উঠে এসেছে দীর্ঘদিন ধরে এখানে অস্ত্র তৈরি ও পাচারের কাজ চলছিল। বাংলাদেশ সীমান্ত থেকে যে গ্রামের দূরত্ব মাত্র ৮ কিলোমিটার! আর এই বিষয়টিই এখন ভাবাচ্ছে পুলিশকে। প্রশ্ন উঠছে, এই সব অস্ত্র কী জঙ্গিদের কাছেও পৌঁছেছে?

 

তথ্যসূত্র : এবিপি আনন্দ।

You Might Also Like