আরব জাহানের সবচেয়ে প্রভাবশালী নেতা বাগদাদি

সদ্যসমাপ্ত বছরটিতে যে মানুষটি বিশ্বব্যাপী সবচেয়ে বেশি পরিচিত পেয়েছে, কোনো সন্দেহ নেই যে তিনি হলেন ৪৩ বছর বয়সী  ইরাকি বংশোদ্ভূত ইব্রাহিম আওয়াদ আল-বদরি, যিনি আবু বকর আল-বাগদাদি হিসাবেই অধিক পরিচিত।

তিনি ইসলামিক স্টেটের (আইএস) প্রধান। বর্তমানে আবু বকর আল-বাগদাদি এবং আইএস নাম দুটি বিশ্বব্যাপী একটি গৃহস্থালি নামে পরিণত হয়েছে।

সিরিয়ায় সামান্য পরিচিতি পাওয়া মিলিশিয়া থেকে আল-বাগদাদি মাত্র ছয় মাসের মধ্যে সিরিয়া ও ইরাকের একটি বিশাল এলাকা করায়ত্ব করে তাকে আইএসআইএস বা আইএসআইএল বা ইসলামিক স্টেট নামে একটি ইসলামি খেলাফতে পরিণত করেন।

তার গড়া এই প্রতিষ্ঠান এখন বিশ্বের সবচেয়ে ভীতিকর সংগঠনে পরিণত হয়েছে। এটিকে বিশ্বের সবচেয়ে ধনী সংগঠন হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে পশ্চিমারা। এটি এখন আন্তর্জাতিক নীতিকেও শাসন করছে।

ইসলামিক স্টেটকে রুখতে বিশ্বব্যাপী ক্ষমতাধর রাষ্ট্রের সমন্বয়ে জোট গঠন করতে হয়েছে। শুধু তাই নয়, তাদের উত্থানের কারণে মধ্যপাচ্যের রাজনৈতিক ও ভৌগলিক মানচিত্র পুনরায় অঙ্কন করতে হচ্ছে।

আল-বাগদাদির যোদ্ধাদের সংখ্যা ৩০,০০০ হাজারের চেয়ে সামন্য কিছু কম। তার জন্য একটি বিশাল সেনাবাহিনী কিংবা অত্যাধুনিক অস্ত্রশস্ত্রের প্রয়োজন নেই। তিনি ভালোভাবেই উপলব্ধি করতে পেরেছেন যে, প্রতিবাদ এবং বিদ্রোহী আন্দোলনের জন্য খুব বেশি সৈন্যের প্রয়োজন হয় না।

তার উপলব্ধি, সামাজিক নেটওয়ার্ক ব্যাটালিয়ন বা সৈন্যের প্রতিস্থাপন হিসেবে কাজ করছে।  হাজার হাজার বুলেটের মূল্যমান হচ্ছে একটি আলোকচিত্র এবং একটি বিচ্ছিন্ন মস্তকই ভয় জাগানোর জন্য যথেষ্ট।

২০১৪ আইএসকে দিয়ে শুরু না হলেও মধ্যপ্রাচ্যে এটিকে আইএসের বছরের হিসাবেই মনে রাখবে এবং আগামী বছরের সম্ভবত এই ধারা বজায় থাকবে। ইতোমধ্য মার্কিন সরকার আল-বাগদাদির মাথায় দাম ১ কোটি ডলারে বৃদ্ধি করেছে।

You Might Also Like