কাঁটাতারেই আটকে গেল প্রেম…

প্রেমের টানে ছয় মাস আগে ভারত ছেড়ে বাংলাদেশে এসেছিলেন পম্পা রানী (২০)। উঠেছিলেন কুষ্টিয়া জেলার বাসিন্দা প্রেমিক আমজাদ আলীর বাড়িতে। কিন্তু এত কিছুর পর তাদের ঐতিহাসিক প্রেম পূর্ণতা পেল না। ছয় মাস কারাভোগের পর আইনের গ্যাঁড়াকলে পড়ে সোমবার ভারতে ফিরে যেতে হলো পম্পাকে। আর এর মাধ্যমে ‘ইতি’ ঘটল তাদের ঐতিহাসিক প্রেমকাহিনির।

 

কুষ্টিয়া জেলা কারাগারের সুপার মুখলেছুর রহমান বলেন, সোমবার সকাল দর্শনা সীমান্তের বিজিবির মাধ্যমে বিএসএফের কাছে পম্পাকে হস্তান্তর করেছে বাংলাদেশ পুলিশ। তবে এ ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানাননি তিনি।

 

উল্লেখ্য, কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার আদাবাড়িয়া ইউনিয়নের সীমান্তসংলগ্ন ধর্মদহ গ্রামের খেজু মালিথার ছেলে আমজাদ আলীর সঙ্গে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলার করিমপুর থানার শিকারপুর কুঠিপাড়ার অসিত কুমার মণ্ডলের মেয়ে পম্পা রানী মণ্ডলের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত ৭ জুন ভারতের শিকারপুর দেবনাথ কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী পম্পা গোসল করতে এসে নদী পার হয়ে বাংলাদেশে চলে আসেন।

 

খবর পেয়ে দৌলতপুর থানা-পুলিশ অবৈধভাবে বাংলাদেশে প্রবেশের দায়ে পাসপোর্ট আইনে পম্পা রানীকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠায়।

You Might Also Like