পাকিস্তানীদের মতই এই সরকার গুম-খুনে লিপ্ত: এরশাদ

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিশেষ দূত হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ বলেছেন, ‘পাকিস্তানি বাহিনী আমাদের দেশকে মেধাশূন্য করতে গুম-খুন-হত্যা করেছিল। বর্তমান আমাদের সরকারের সময়ও একইভাবে গুম-খুন করা হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা এই সংস্কৃতি চাই না। গুম-খুন থেকে আমরা মুক্তি চাই। আমরা শান্তিতে থাকতে চাই। দেশে এভাবে গুম-খুনের রাজনীতি চলতে পারে না।’

রবিবার সকালে রাজধানীর মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানাতে এসে এরশাদ এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানিরা ক্ষমতায় ছিল। সে সময় তাদের হানাদার বাহিনী আমাদের শ্রেষ্ঠ সন্তানদের গুম-হত্যা করেছিল। বর্তমান সরকারের সময়েও একইভাবে গুম-খুন হচ্ছে।

এ সময় এরশাদ গত নয় মাসে ৮২ জন গুম-খুনের শিকার হয়েছেন বলে তথ্য তুলে ধরেন।

তিনি আরো বলেন, ‘২০ হাজার নেতাকর্মী নিয়ে আজ আমি শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে এসেছি। এ জায়গাটি আগে বিরান ভূমি ছিল। আমিই প্রথম শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের জন্য এখানে সৌন্দর্যবর্ধনের কাজ করি।’

সাবেক এই স্বৈরশাসক বলেন, আমিই প্রথম রাষ্ট্রপতি যে প্রথম শহীদ বুদ্ধিজীবীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করতে এখানে আসি।

এ সময় তিনি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘আপনি (খালেদা জিয়া) জিয়াউর রহমানকে হত্যার বিষয়ে আমার জড়িতের কথা বলেছেন। কিন্তু আমি বলতে চাই আপনারা তিনবার ক্ষমতায় ছিলেন। কেন জিয়া হত্যার বিচার করতে পারেননি?’

এরশাদ বলেন, ‘একবার বিচার শুরু হলেও তা কেউ প্রমাণ করতে পারেনি। প্রয়োজন হলে আবারো বিচার শুরু করুন। আমরাও জানতে চাই- জিয়ার প্রকৃত হত্যাকারী কে?’

তিনি বলেন, ‘দেশে এখন সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি চলছে। এভাবে চলতে পারে না। তবে জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় আসলে আমরা এসবের বিচার করব। আমরা ক্ষমতায় আসলে দেশে শান্তি ফিরে আসবে।’

এ সময় এরশাদের সঙ্গে দলের মহাসচিব জিয়া উদ্দিন বাবলুসহ সিনিয়র নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

You Might Also Like