প্রেমে সময় নষ্ট!

এ কী বলছেন অনুশকা শর্মা! প্রেম করা মানে অযথা সময় নষ্ট! তাহলে কি বিরাটের সঙ্গে এতদিনের মাখো-মাখো সম্পর্কে চিড় ধরল! না, অনুশকার কথা থেকে এমনটা ভাবার কোনও কারণ নেই।

সম্প্রতি ‘কাউচিং উইথ কোয়েল’ অনুষ্ঠানে নিজের আসন্ন ছবি ‘পিকে’, গসিপ, অভিনয় এবং প্রেম-জীবন নিয়ে বলতে গিয়ে জানিয়েছেন, ‘বিরাট আর আমার সম্পর্ক নিয়ে এক কথা বলতে আর ভালো লাগছে না!’

শুরুটা শ্যাম্পুর বিজ্ঞাপন দিয়ে। তাকে ‘গসিপ’ বা ‘সম্পর্ক’ যা-ই বলুন না কেন, বেশ বোঝা গিয়েছিল, বিরাট-অনুশকা ‘প্রীতি’ জমে গিয়েছে।

অনেক লুকোচুরির পর অবশেষে মিঞা-বিবি (এখনও হবু!) আপাতত খোলাখুলি মেনে নিয়েছেন তাঁদের ‘সম্পর্ক’। শুধু কি জানানো! কোয়েল পুরি রিনচেট-র অনুষ্ঠানে ব্যাট হাতে শ্যাডো প্র্যাকটিস করে বুঝিয়ে দিলেন ‘বিরাট’ আর ‘ক্রিকেট’ তাঁর কাছে সমান প্রিয়। এবং এই অনুভূতি তিনি লুকোতেও চান না। কেবল সম্পর্ক নিয়ে নতুন করে কিছু বলতে চান না তিনি।কথায় কথায় এমনটাও বলেছেন, বিরাটের সংবেদনশীলতা ও আবেগপ্রবণতা-ই তাঁকে আকৃষ্ট করেছে।

এক সময় রণবীর সিং আর অনুশকার প্রেম নিয়ে বলিউডি বাতাসে গুঞ্জন শোনা গিয়েছিল। এ ব্যাপারে অনুশকার বক্তব্য, ‘রণবীর কোনওদিন আমার বয়ফ্রেন্ড ছিল না।’

একই সঙ্গে লিপ এনহ্যাসমেন্টের বিষয়টাও সবিস্তারে জানান। অনুরাগ কাশ্যপের ‘বম্বে ভেলভেট’ ছবিতে অনুশকা জ্যাজ সিংগার-র ভূমিকায় অভিনয় করেছিলেন। চরিত্রটাকে প্রাণবন্ত করতেই এই লিপ এনহ্যাসমেন্টের প্রয়োজন হয়েছিল।

আসন্ন ছবি ‘পিকে’ সম্বন্ধে অনুশকা জানিয়েছেন, রাজকুমার হিরানি, আমির খান-র মতো মি. পারফেকশনিস্টদের সঙ্গে কাজ করতে পেরে খুব ভালো লেগেছে। দু’জনের সম্বন্ধে বলতে গিয়ে অনুষ্কা জানান, পরিচালক হিরানি খুব মেপে কথা বলেন। আর আমিরের মধ্যে রয়েছে অন্য স্তরের ‘একাগ্রতা’।

You Might Also Like