বিদেশী পিস্তলসহ সন্ত্রাসী মুন্না গ্রেফতার

র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব) প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সবসময়ই অবৈধ অস্ত্র ও মাদক উদ্ধারের ক্ষেত্রে অত্যন্ত অগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। র‌্যাবের সৃষ্টিকাল থেকে এই পর্যন্ত র‌্যাব বিপুল পরিমান অবৈধ অস্ত্র ও গোলাবারুদ উদ্ধার করে সাধারন জনগনের মনে আস্থা অর্জন করতে সম হয়েছে।
দেশের সার্বিক আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখার লক্ষে র‌্যাব-১ সর্বদা কাজ করে যাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় অদ্য ০৮ ডিসেম্বর ২০১৪ তারিখ র‌্যাব-১, উত্তরা, ঢাকা এর একটি আভিযানিক দল লেঃ কমান্ডার কাজী মোঃ শোয়াইব এর নেতৃত্বে গাজীপুর জেলার টংগী থানাধীন বিসিক এলাকায় একটি বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে। অভিযানকারী দলটি গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারে যে, গাজীপুর জেলার টংগী থানাধীন বিসিক এলাকাস্থ পূর্ব আরিচপুর(কদমতলী), লিলি ফুডের মোড় সংলগ্ন “বিসমিল্লাহ্ এন্টার প্রাইজ” দোকানের সামনে রাস্তার উপর কয়েকজন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী অবস্থান করছে। প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে অভিযানকারী দলটি আনুমানিক ১৪৩০ ঘটিকার সময় উক্ত এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী (১) মোঃ মুন্না@জাওরা মুন্না(১৯), পিতা-মোঃ মনির হোসেন, গাজীপুর, (২) মোঃ নাজমুল হক @ রাজু(১৯), পিতা-মোঃ আনছার আলী, গাজীপুর এবং (৩) মোঃ আলাউদ্দিন(৩০), পিতা-মোঃ চাঁন মিয়া, গোপালগঞ্জ, বর্তমান ঠিকানা সাং-টংগী ভরাণ(শাহ কোম্পানীর মালিকের বাসার ভাড়াটিয়া), থানা-টংগী, জেলা-গাজীপুরদেরকে ০১টি বিদেশী পিস্তল, ০১টি ম্যাগাজিন এবং ০২ রাউন্ড পিস্তলের গুলিসহ হাতে-নাতে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন প্রক্রিয়াধীন।
ধৃত আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায় যে, উক্ত আসামীগণ টঙ্গী এলাকাসহ জেলার বিভিন্ন থানা এলাকায় অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে চুরি/ছিনতাই/চাঁদাবাজিসহ বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ড পরিচালনা করে আসছিল। ধৃত আসামীগণ অদ্য অস্ত্রের মহড়া প্রদর্শনের মাধ্যমে পেশীশক্তি প্রয়োগ এর জন্য টংগী থানাধীন বিসিক এলাকায় সমবেত হয়েছিল বলে তারা জানায়।

You Might Also Like