পদ্মাসেতু অধিগ্রহণের টাকা বুঝিয়ে দেয়া হবে : নৌমন্ত্রী

নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান বলেছেন, পদ্মা সেতু হয়ে গেলে এপাড় আর ওপাড়ের ভেদাভেদ থাকবে না আমরা সবাই একাকার হয়ে যাব। এ এলাকায় যারা পদ্মাসেতুর অধিগ্রহণে জমি দিয়েছেন, কিন্তু এখনও টাকা বুঝে পাননি, আমি বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যান ও মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসককে বলব তাদের পাওনা বুঝিয়ে দেওয়ার জন্য।

আজ রবিবার দুপুর ১টায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান এসব কথা বলেন।

খুব শিগগিরই আমরা এ ঘাটে ১১টি ড্রেজার সব সময়ের জন্য রাখব। আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমলে দুর্নীতি হ্রাস পেয়েছে। শেখ হাসিনা এই সেতুর জন্য কারো কাছে হাত পাতেননি এবং কারো কাছে ভিক্ষার জন্য যাননি। নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু হচ্ছে। মুন্সীগঞ্জের লৌহজং-এ নবনির্মিত মাওয়া নদী বন্দর (শিমুলিয়া) আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়।

এরপর বিআইডব্লিউটিএ’র আয়োজনে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, নৌ-পরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খান।

বিশেষ অতিথি ছিলেন, মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য সাগুফতা ইয়াছমিন এমিলি, নৌ- পরিবহন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব রফিকুল ইসলাম।

বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যান ড. খন্দকার শামসুদ্দোহার সভাপতিত্বে অন্যান্য অতিথিদের আরও উপস্থিত ছিলেন, নৌ-পুলিশের ডিআইজি মনিরুজ্জামান, মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. সাইফুল হাসান বাদল, লৌহজং উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল গণি কালন, লৌহজং উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রশীদ সিকদার প্রমুখ।

You Might Also Like