শিম্পাঞ্জির মানবাধিকার নেই

শিম্পাঞ্জির কোনো মানবাধিকার নেই বলে রায় দিয়েছেন নিউইয়র্কের এক আদালত। শিম্পাঞ্জিকে মানুষের মতো ‘আইনি ব্যক্তি’ হিসেবে বিবেচনা করা এবং তাদের স্বাধীনতার অধিকার দেয়া উচিৎ দাবি করে গত অক্টোবরে ‘দ্য নন হিউম্যান রাইটস প্রজেক্ট’ (এনএইচআরপি) নামের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন আদলতে মামলা করে।

এর পরিপ্রেক্ষিতে পাঁচ বিচারকের সমন্বয়ে গঠিত একটি বেঞ্চ বৃহস্পতিবার এ রায় দেন।

টমি নামে ৪০ বছরের একটি শিম্পাঞ্জিকে খাঁচায় আটকে রেখে প্রতিপালন করেন নিউইয়র্কের ল্যাভারি নামের এক ব্যক্তি। এই টমির মুক্তির দাবিতেই মামলা করেছিল এনএইচআরপি।

মামলার আবেদনে বলা হয়, মানুষের সঙ্গে আচরণগত অনেক মিল থাকায় টমির মতো শিম্পাঞ্জিদেরও স্বাধীন জীবনযাপনের মতো কিছু মৌলিক অধিকার থাকা উচিৎ।

কিন্তু রায়ে আদালত বলেছেন, আইনি তত্ত্ব অনুযায়ী যিনি দায়িত্ব পালন ও অধিকার পাওয়ার যোগ্য, তাকেই ব্যক্তি হিসেবে গণ্য করা হয়। মানুষের মতো শিম্পাঞ্জির কোনো আইনি দায়দায়িত্ব নেই, তার কোনো সামাজিক দায়বদ্ধতাও নেই, অথবা নিজের কাজের জন্য আইনিভাবে তাকে জবাবদিহিও করতে হয় না। সে কারণে তাকে ‘আইনি ব্যক্তি’ বলে চিহ্নিত করা যাবে না।

You Might Also Like