হিউজের শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত

অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলসের শহর ম্যাকসভিলি। আর সেখানেই জন্ম অস্ট্রেলিয়ার সদ্য প্রয়াত ক্রিকেটার ফিলিপ হিউজের। পড়েছিলেন ম্যাকসভিলি হাইস্কুলে। এক সময় ব্যাট হাতে এ স্কুলের মাঠ দাপিয়ে বেরিয়েছেন তিনি। বিশ্ব ক্রিকেটেও দাপট দেখিয়েছিলেন ২৫ বছর বয়সি হিউজ। অস্ট্রেলিয়ার ঘরোয়া লিগে ব্যাট করার সময় বলের আঘাতে মারা যান তিনি।

বুধবার তার শেষকৃত্যও অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রিয় ক্রিকেটারের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানাতে সেখানে হাজারো ভক্ত জড়ো হয়। তারা ফুল আর চোখের জলে শেষ বিদায় দেন হিউজকে।

শৈশবের স্মৃতিঘেরা ম্যাকসভিলি স্কুলের মাঠে ওই শেষকৃত্য অনুষ্ঠিত হয়। হিউজের পরিবারের সদস্যদের পাশাপাশি সেখানে উপস্থিত ছিলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী টনি অ্যাবোট। হিউজের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানাতে আগেই সেখানে বান্ধবীসহ হাজির হন অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দলের অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক।

অস্ট্রেলিয়া দলের সব সদস্যও শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে যোগ দেন। সাড়ে ১২টার দিকে হিউজের কফিন স্কুলের মাঠে এসে পৌঁছায়। শেষকৃত্য অনুষ্ঠান দেখানোর জন্য অস্ট্রেলিয়ার বিভিন্ন শহরের মোড়ে জায়ান্ট স্ক্রিন প্রজেক্টর বসানো হয়।

২৫ নভেম্বর দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার হয়ে নিউ সাউথ ওয়েলসের বিপক্ষে মাঠে নেমেছিলেন হিউজ। ৬৩ রানের ঝকঝকে একটি ইনিংসও খেলেন তিনি। কিন্তু নিউ সাউথ ওয়েলসের পেসার শন অ্যাবোটের বাউন্সার হুক করতে গিয়ে বল হিউজের মাথায় লাগে। কয়েক সেকেন্ড দাঁড়িয়ে ছিলেন হিউজ। পরক্ষণেই ২২ গজের প্রিয় ক্রিজে লুটিয়ে পড়েন। তাকে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়া হয় সিডনি হাসপাতালে। সেখানে হিউজকে নেওয়ার পর মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করা হয়। কিন্তু কোনো কাজ না হওয়ায় কোমায় ছিলেন তিনি।

দুদিন পর ২৭ নভেম্বর তাকে মৃত্যু ঘোষণা করেন অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেট টিমের চিকিৎসক পিটার বাকনার।

৩ নভেম্বর হিউজের ২৬তম জন্মদিন ছিল। কিন্তু সেটা আর পালন হয়নি তার। ওয়ানডে ক্রিকেটে ৬৪ নম্বর জার্সি পরে খেলতেন ফিলিপ হিউজ। অস্ট্রেলিয়া দলে এই জার্সিটি কোনো দিন ব্যবহার করা হবে না বলে জানিয়েছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে ২৬টি টেস্ট ও ২৫টি ওয়ানডে খেলেছেন ২৫ বছর বয়সী হিউজ। ২৬ ম্যাচে ৩ শতক আর ৭ অর্ধশতক হাঁকানো হিউজের ব্যাট থেকে এসেছে ১ হাজার ৫৩৫ রান। আর ওয়ানডেতে ২৫ ম্যাচ খেলে রান করেছেন ৮২৬ রান। এতে দুটি শতকের সঙ্গে চার অর্ধশতকের ইনিংসও রয়েছে।

You Might Also Like