মানুষের শাসন নয়, আইনের শাসনের পথে চীন

তিয়েনআনমেন স্কয়ারে গিয়ে দেখলাম মাও সেতুংয়ের বিশাল আলোকচিত্র শোভিত রয়েছে। বাঙালির চিন্তাচেতনা অনুযায়ী এই ছবি সেখানে স্বমহিমায় উদ্ভাসিত থাকার কথা নয়। বাকশাল করেছিলেন বলে আমরা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সম্পূর্ণ মুছে ফেলতে চাই। সেই বিবেচনায় মাও সেতুং ‘বাকশাল’ করেও পার পেয়ে গেলেন। তাঁর বাকশাল মানে ‘সাংস্কৃতিক বিপ্লব’। মাওয়ের স্মৃতির যে অংশ ভুলে যাওয়াই ভালো, জনগণ তা ঠিকই ভুলছে। মাওয়ের ভুলকে চীনা কমিউনিস্ট পার্টির নেতারা মর্যাদার সঙ্গে মার্জনা করছেন। মাওয়ের ভুলের তাঁরা সমালোচনা করেন। কিন্তু তাঁর নাম ইতিহাস থেকে মুছে দেননি।

You Might Also Like