ডা. শামারুখের মরদেহ পুন‍রায় ময়নাতদন্তের নির্দেশ

যশোরের সাবেক সংসদ সদস্য টিপু সুলতানের পুত্রবধূ ডা. শামারুখ মেহজাবিন সুমির মরদেহ পুন‍রায় ময়নাতদন্তের জন্য কবর থেকে উত্তোলনের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (২৫ নভেম্বর) ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বিকাশ কুমার সাহা এ আদেশ দেন।

মামলার বাদী ডা. শামারুখের বাবা পিডিবির সাবেক প্রকৌশলী নুরুল ইসলামের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে এ আদেশ দেওয়া হয়।

ডা. শামারুখের মরদেহ যশোরের কারবালা সরকারি কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। এজন্য যশোরের ডেপুটি কালেক্টরেটকে (ডিসি) কবর থেকে উত্তোলনের জন্য একজন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের নির্দেশ দেন আদালত।

একই সঙ্গে আদালত মরদেহের ময়নাতদন্তের জন্য যশোর সিভিল সার্জনসহ তিন সদস্যের একটি কমিটি গঠনেরও নির্দেশ দিয়েছেন।

এর আগে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগে ডা. শামারুখের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। ওই প্রতিবেদনে শামারুখ আত্মহত্যা করেছেন বলে উল্লেখ করা হয়েছে। শামারুখের বাবা রিপোর্ট প্রত্যাখান করেন।

গত ১৩ নভেম্বর রাজধানীর ধানমণ্ডির ৬ নম্বর রোডের ১৪ নম্বর বাসা থেকে হলি ফ্যামিলি মেডিকেল কলেজের ইন্টার্ন ডা. শামারুখ মেহজাবিন সুমির লাশ উদ্ধার করা হয়।

পারিবারিক কলহের জের ধরে শ্বশুর-শাশুড়ি তাকে হত্যা করেছেন বলে অভিযোগ করেন সুমির বাবা নুরুল ইসলাম। এ ঘটনায় মামলাও করা হয়।

ওই বাসায় বাসায় শামারুখসহ শ্বশুর টিপু সুলতান, শাশুড়ি ও স্বামী হুমায়ুন সুলতান সাদাব বসবাস করতেন।

You Might Also Like