বিশ্বকাপের ফাইনাল নিয়ে মুখ খুললেন ক্ষুব্ধ মেসি

ব্রাজিল বিশ্বকাপে মারিও গোটসের এক গোলে স্বপ্নভঙ্গ হয়েছিল আর্জেন্টিনার। বিশ্বকাপের ফাইনালে লিওনেল মেসি বেশ কয়েকটি সুযোগ পেয়েও সেগুলো কাজে লাগাতে পারেননি। আর সে কারণে মানুষ তার সমালোচনায় মুুখর। এতোদিন বিষয়টি নিয়ে মেসি কোনো কথা না বললেও অবশেষে মুখ খুলেছেন বার্সেলোনার এই তারকা ফুটবলার।

অনেকটা ক্ষোভ নিয়েই জানিয়েছেন বিশ্বকাপের ফাইনালে তিনি একটা গোল পেলে আর এতো সমালোচনা হত না। গোল না পাওয়ায় রাজ্যের যত দোষ সব তার। কিন্তু ফাইনালে গোল পেলে দৃশ্যপট ভিন্ন হতে পারত।

মেসি বলেন, ‘বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল ও ফাইনালে আমি আরো ভালো খেলার চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু সেটা হয়নি। না হওয়ায় অনেক সমালোচনাও হচ্ছে। কিন্তু ফাইনালে যদি আমি একটা গোল পেতাম তাহলে মানুষ বলত আমার বিশ্বকাপ মিশন অসাধারণ হয়েছে। সমালোচনা আমাকে ব্যথিত করে। আর্জেন্টিনা দারুণ একটি বিশ্বকাপ খেলেছে। কিন্তু মনে হচ্ছে একমাত্র একজন খেলোয়াড় যে সবচেয়ে বাজে খেলেছে সেটা আমি।’

বিশ্বকাপের ফাইনালে পাওয়া সুযোগের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘জার্মানির বিপক্ষে ফাইনালে জয় পাওয়ার অনেক সুযোগ আমাদের সামনে এসেছিল। কিন্তু সেগুলো আমরা কাজে লাগাতে পারিনি। এটা আমার কাছে আরো বেশি বেদনাদায়ক। এটা খুবই কঠিন। শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত ভালো খেলেও অনেকটা নিজেদের দোষেই গোল হজম করতে হয়েছে আমাদেরকে।’

তিনি আরো বলেন, ‘দুর্ভাগ্যক্রমে আমরা ব্রাজিল বিশ্বকাপ জিততে পারিনি। সেটা এখন আর নেই। নতুন একটি পদ্ধতি চালু হয়েছে। বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব ও বিশ্বকাপে যা ঘটেছে সেটা আমরা উপভোগ করেছি এবং এটার স্মৃতি কখনোই ভুলব না।’

২০১৫ সালে অনুষ্ঠিত কোপা আমেরিকায় নতুন কোচ টাটা মার্টিনোর তত্ত্বাবধানে মাঠে নামবে মেসিরা। এ বিষয়ে বার্সেলোনার তারকা ফুটবলার বলেন, ‘আমি মার্টিনোকে বার্সেলোনা থেকেই চিনি। তাকে নিয়ে আমি বেশ আত্মবিশ্বাসী। যখন আপনি দুটি ম্যাচ হারবেন তখন সব দিক থেকেই সমালোচনা শুনতে হবে। পর্তুগালের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচটি একটি সাধারণ ম্যাচ ছিল। এটা খুব বেশি প্রাসঙ্গিক নয়। কারণ, আমি ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর বিপক্ষে মাঝে মধ্যেই খেলি।’

You Might Also Like