টাইগারদের ইতিহাস, জিম্বাবুয়ে বাংলাওয়াশ

তিন টেস্ট সিরিজের শেষ ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ১৮৬ রানের জয় পেয়েছে বাংলাদেশে। এ জয়ের মধ্য দিয়ে ইতিহাস গড়ল স্বাগতিকরা। প্রথমবারের মতো টেস্টে কোনো দলকে (জিম্বাবুয়ে) ৩-০ ব্যবধানে হারিয়ে ধবলধোলাই করার স্বাদ পেয়েছেন টাইগাররা।

চট্টগ্রাম জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে ৪৪৯ রানের প্রায় অসম্ভব টার্গেট তাড়া করতে নেমে পঞ্চম দিনের পথচলা মোটেই সুখকর হয়নি জিম্বাবুয়ের।পার্টটাইম বোলার শুভাগত হোমের শিকার হয়ে সাজঘরে ফেরেন হ্যামিলটন মাসাকাদজা। বিদায়ের আগে ৯১ বলে ৩৮ রানের মূল্যবান ইনিংস খেলেন তিনি।

মাসাকাদজার পর বিদায় নেন সিকান্দার রাজাও। শুভাগত হোমের বলে তাইজুল ইসলামের হাতে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নের পথ বেছে নেন রাজা। তার আগে ৭৫ বলে ৯ চার ও ২টি ছক্কায় ৬৫ রান করেন তিনি।

শুভাগত হোমের পর উইকেটের দেখা পেলেন জুবায়ের হোসেন লিখনও। জিম্বাবুয়ের ১৬৫ রানের মাথায় অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেলরকে সাজঘরে ফেরত পাঠান তিনি। এবার এলটন চিগুম্বুরাকেও ফেরালেন জুবায়ের। ইমরুল কায়েসের হাতে তালুবন্দি হওয়ার আগে ৫ রান করেন চিগুম্বুরা।

অবশেষে উইকেটের দেখা পান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদও। ব্যক্তিগত ১৬ রানের মাথায় মাহমুদউল্লাহর বলে এলবিডব্লিউর শিকার হন ক্রিগ আরভিন। রিচমন্ড মুতমবামিকে (২) এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন তাইজুল ইসলাম। এরপর বিদায় নেন টিনাশে পানিয়াঙ্গারাও। ব্যক্তিগত ২ রানের মাথায় রুবেল হোসেনের শিকার হন তিনি। দলীয় ২৬২ রানের শাথায় শফিউল ইসলামের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন জিম্বাবুয়ের শিঙ্গি মাসাকাদজা (০)। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে বিদায় নেন মিশিউংগি। এ উইকেটটিও দখলে নেন শফিউল। সব কটি উইকেট হারিয়ে ২৬২ রান করে জিম্বাবুয়ে।

এর আগে প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশ ৫০৩ রান সংগ্রহ করে। জবাবে জিম্বাবুয়ে ৩৭৪ রানে আটকে যায়। ১২৯ রানের লিড নিয়ে বাংলাদেশ দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে। ৫ উইকেটে ৩১৯ রান তুলে ইনিংস ঘোষণা করেন মুশফিক।

You Might Also Like