রিপাবলিকানদের সঙ্গে কাজ করার অঙ্গীকার করলেন ওবামা

যুক্তরাষ্ট্রের রাজনৈতিক অচলাবস্থা নিরসনে একসঙ্গে কাজ করার অঙ্গীকার করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা এবং সিনেটের রিপাবলিকান দলের নতুন নেতা ম্যাককোনেল। মধ্যবর্তী নির্বাচনে রিপাবলিকানদের ঐতিহাসিক জয়ের পর তারা এই অঙ্গীকার করলেন।

নতুন সিনেট নেতা মিচ ম্যাককোনেল বলেছেন, তিনি সিনেটকে কার্যকর করতে এবং বিল পাস করতে তিনি ভুমিকার রাখবেন। অন্যদিকে প্রেসিডেন্ট ওবামা বলেছেন, আগামী দু বছরকে উৎপাদনক্ষম করতে তিনি নতুন কংগ্রেসের সঙ্গে কাজ করবেন।

নির্বাচনী প্রচারাভিযান চলাকালেই কংগ্রেসের ভূমিকা নিয়ে মার্কিন ভোটারদের মধ্যে হতাশা লক্ষ্য করা গেছে। এখন বিরোধী দল সিনেট নির্বাচনে বেশি আসন পাওয়ায় তাদের সেই উদ্বেগ আরো বৃদ্ধি পেয়েছে।

জনগণকে নিশ্চিত করতে বুধবার হোয়াইট হাউসে এক সংবাদ সম্মেলনে ওবামা বলেছেন, দুই দলই ভোটারদের হতাশা উপলব্ধি করেছে এবং তা কাটিয়ে ওঠতে তারা একসঙ্গে কাজ করবেন। তিনি আরো বলেন,‘আমরা অবশ্যই একসঙ্গে কাজ করার উপায় খুঁজে বের করবে। এখন আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোর দিকে নজর দিতে হবে।’

শুক্রবার হোয়াইট হাউসে ডেমোক্রাট ও রিপাবলিকান নেতাদের এক বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন ওবামা।

এর আগে বুধবার এক বিবৃতিতে রিপাবলিকান নেতা ম্যাককোনেল সিনেটকে আরো কার্যকর করার প্রতিশ্রুতি দেন। তিনি বলেন,‘গত কয়েক বছর ধরে বলতে গেলে কোনো কাজই করেনি সিনেট। আমরা এখন কাজে ফিরে যাব এবং বিভিন্ন বিল পাস করার উদ্যোগ নিব।’ এছাড়া তিনি মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সঙ্গে মিলে বাণিজ্য চুক্তি এবং কর সংস্কার করারও অঙ্গীকার করেছেন।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবারের মধ্যবর্তী নির্বাচনে ব্যপক জয় পেয়েছে রিপাবলিকানরা। মাত্র ছয়টি আসন পেলেই যেখানে দলটি কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটের নিয়ন্ত্রণ লাভ করত, সেখানে তারা সাতটি আসনে জয় পেয়েছে। আরকানস, কলোরাডো, আইওয়া, মন্টানা, নর্থ ক্যারোলাইনা, সাউথ ডেকোটা এবং ওয়েস্ট ভার্জিনিয়ায় জয়ী হয়েছে রিপাবলিকান পার্টি। অন্যান্য রাজ্যের ভোট গণনায়ও আরো ভোট পাওয়ার আশা আছে দলটির।

উত্তর ক্যারোলাইনা, ক্যানসাসে ডেমোক্র্যাট সিনেটরদের জয় কাঙ্খিত থাকলেও জয় পেয়েছেন রিপাবলিকানরা। প্রেসিডেন্ট ওবামার নিজ রাজ্য ইলিনয়িসেও ডেমোক্রাটদের পরাজয় ঘটেছে, জয় পেয়েছেন বিরোধী রিপাবলিকানরা।

প্রতিনিধি পরিষদেও রিপাবলিকানরা যথেষ্ট শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে। জানুয়ারিতে নতুন কংগ্রেস যখন ক্ষমতা গ্রহণ করবে, তখন ২০০৬ সালের নির্বাচনের পর প্রথমবারের মতো কংগ্রেসের উচ্চ ও নিম্ন, উভয় কক্ষেরই দায়িত্ব গ্রহণ করবে দলটি।

You Might Also Like