ফাঁসির রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করা হবে : আসামিপক্ষ

মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় জামায়াতে ইসলামীর নির্বাহী পরিষদের সদস্য ও  দিগন্ত মিডিয়া করপোরেশনের চেয়ারম্যান মীর কাসেম আলীর ফাঁসি আদেশ দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। তবে এ রায় সঠিক হয়নি মন্তব্য করে তার বিরুদ্ধে আপিল করা হবে বলে জানিয়েছেন মীর কাসেমের আইনজীবীরা।

 

মীর কাসেমের ফাঁসির রায়ের পর আসামিপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মিজানুল ইসলাম বলেন, ‘ট্রাইব্যুনাল যে মামলায় মৃত্যুদণ্ডের আদশে দিয়েছেন তা সঠিক হয়নি। গোজামিল দিয়ে এ মামলার রায় হয়েছে। ট্রাইব্যুনালে এই প্রথম সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে রায় দেওয়া হয়েছে, যা আগে কখনো হয়নি। যেসব আঅভিযোগ মীর কাসেম আলীকে শাস্তি দেওয়া হয়েছে তার কোন ভিত্তি নেই। এ রায়ের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ আদালতে আপিল করা হবে।’

 

আসামিপক্ষের আরেক আইনজীবী মো. সাইফুর রহমান বলেন, ‘অতীতের রায়গুলোর মতো গতানুগতিকভাবে এ রায় দেওয়া হয়েছে। রায় যথার্থ হয়নি। একজন মাত্র সাক্ষীর উপর ভিত্তি করে মীর কাসেম আলীকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে। চট্টগামের ডালিম হোটেলের ঘটানায় তাকে শাস্তি দেওয়া হয়েছে। অথচ সে সময় তিনি সেখানে ছিলেন না। তিনি ছিলেন ঢাকায়। যে সাক্ষী এখানে সাক্ষ্য দিয়েছেন তার জন্ম হয়েছে ১৯৭৭ সালে।’

You Might Also Like