২১ স্ত্রীর স্বামীকে যৌন নিপীড়নের দায়ে ৩০ বছরের জেল

গোয়েল রাটজন। বয়স এখন ৬৪ বছর। সংসার করেছেন ২১ নারীকে নিয়ে। হয়েছেন ৩০ জনেরও বেশি সন্তানের বাবা। কিন্তু তিনি বহুগামী।

 

বহুগামিতার কারণে তার লালসার শিকার হয় তার-ই মেয়েরা। স্ত্রীদের ওপর চালাতেন যৌন নিপীড়ন। এসব অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। যে কারণে পিশাচ প্রকৃতির এই ব্যক্তিকে ৩০ বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

 

আশ্চর্য ব্যাপার হলো, স্ত্রী ও মেয়েরা তার বিরুদ্ধে সাক্ষী দেওয়ার পরও গোয়েল দাবি করেছেন, তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ মিথ্যা। তিনি ষড়যন্ত্রের শিকার। এসব নারীরা স্বেচ্ছাপ্রণোদিত হয়ে তার সঙ্গে থাকতেন। এখন তাকে ফাঁসানো হচ্ছে।

 

চার বছর আগে আটক হওয়া গোয়েলের বিচার শুরু হয় ইসরায়েলের তেল আবিবের জেলা আদালতে। সাক্ষ্য-প্রমাণ শেষে তিনি দোষী সাব্যস্ত হন। মঙ্গলবার আদালতের রায়ে তার ৩০ বছরের কারাদণ্ড হয়।

 

তার বিরুদ্ধে অনুসন্ধান চালিয়ে পুলিশ প্রমাণ পেয়েছে, গোয়েল তেল আবিবের বিভিন্ন স্থানে বাসা ভাড়া নিয়ে স্ত্রীদের রাখতেন। কিন্তু তাদের ন্যূনতম জীবনচাহিদা মেটাতেন না তিনি। বরং ইচ্ছামতো শারীরিক ও যৌন নির্যাতন চালাতেন।

 

এখানেই শেষ নয়। ইসরায়েলের গণমাধ্যম জানিয়েছে, কিছুদিন পরে স্ত্রীদের সন্তানসহ ঘরছাড়া করতে তাদের ওপর অমানুষিক নিপীড়ন শুরু করতেন। কথা না শুনলে আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে সব ধরনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে দিতেন।

 

তথ্যসূত্র : বিবিসি অনলাইন।

You Might Also Like