প্রধানমন্ত্রী ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতালির ব্যবসায়িক প্রাণকেন্দ্র মিলানে ৪ দিনের সফর শেষে দেশে ফিরেছেন। শনিবার রাত ১১টা ৫০ মিনিটে প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ভিভিআইপি ফ্লাইট ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

এ সময় মন্ত্রিপরিষদের সদস্যবৃন্দ, দলের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে স্বাগত জানান।

এর আগে বেলা সাড়ে ১১টায় (মিলান সময়) মিলানের মলপেনসা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ সময় ইটালিতে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শাহাদাত হোসেন ও মিলানে বাংলাদেশ কাউন্সেল জেনারেল রেজিনা আহমেদ বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান।

শেখ হাসিনা আসেম শীর্ষ সম্মেলনে ভাষণে আন্তর্জাতিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তুলে ধরেন। তিনি অর্থনীতি ও যোগাযোগের ক্ষেত্রে এশিয়া ও ইউরোপের মধ্যে শক্তিশালী অংশীদারিত্ব গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, এশিয়া ও ইউরোপ সম্পর্ককে বাস্তবে রূপ দিতে আরো অনুকূল বাণিজ্য, কারিগরি সহযোগিতা এবং জনগণ পর্যায়ে যোগাযোগ বাড়াতে হবে।

তিনি সম্মেলনের সমাপনী অধিবেশনে কার্বন নিঃসরণ ও জলবায়ু পরিবর্তনজনিত পরিস্থিতি মোকাবিলায় বাংলাদেশের অঙ্গীকার পুনর্ব্যক্ত করে কার্বন নিঃসরণকারী দেশগুলোর প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের আহ্বান জানান।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্মেলনে যোগদানের পাশাপাশি ইতালির প্রধানমন্ত্রী মাত্তেরো রেনজি, গ্রীস প্রধানমন্ত্রী এ্যান্তিনিওয়াস সামারাস, সুইস প্রধানমন্ত্রী স্টীফেন লোফভীন এবং ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুটের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করেন।

শেখ হাসিনা ইতালির প্রেসিডেন্টের দেয়া ভোজ সভায় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে, জার্মান চ্যান্সেলর এ্যাঞ্জেলা মার্কেলের সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেন।

তিনি মিলানে বাংলাদেশি সমপ্রদায়ের দেয়া এক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

বাংলাদেশ ২০১২ সালে আসেমের ৫১তম সদস্য পদ লাভ করে। আসেম সদস্য দেশগুলো পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধের চেতনা এবং রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সাংস্কৃতিক বিষয়ে দুটি অঞ্চলের মধ্যে সম্পর্ক জোদারের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে।

প্রসঙ্গত, গত বুধবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দশম আসেম শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে মিলানে যান।

You Might Also Like