লাটভিয়ায় মোতায়েন হলো মার্কিন ট্যাংক বহর

সাবেক সোভিয়েত প্রজাতন্ত্র লাটভিয়ায় মার্কিন ট্যাংক বহর মোতায়েন করা হয়েছে। ন্যাটো যখন মস্কোর বিরুদ্ধে শক্তি প্রদর্শন করছে তখন মার্কিন ফার্স্ট ক্যাভেলারি ডিভিশনের আব্রাহাম ট্যাংক লাটভিয়ার আদাজি ঘাঁটিতে মোতায়েন করা হলো।

রাজধানী রিগার অদূরে অবস্থিত এ ঘাঁটিতে দেড়শ মার্কিন সেনা এবং পাঁচটি ট্যাংক মোতায়েন করা হয়েছে। একই সঙ্গে মোতায়েন করা হয়েছে মার্কিন ১১ ব্রাডলি ফাইটিং ভেহিকেলস। দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে বাল্টিক সাগরের তীরবর্তী দেশগুলো এবং পোল্যান্ডে এ বহর মোতায়েন করা হবে। ‘প্রশিক্ষণ’ দেয়ার লক্ষ্যে এ বহর মোতায়েনের দাবি করেছে আমেরিকা।

অবশ্য ফার্স্ট ক্যাভেলারি ডিভিশনের প্রথম ব্রিগেডের কমান্ডার বলেছেন, বহুজাতিক প্রশিক্ষণ ছাড়াও এ বহর মোতায়েনের মধ্য দিয়ে ন্যাটো মিত্রদের আশ্বস্ত করার প্রতিশ্রুতি প্রদর্শন করছে আমেরিকা। ১৯২১ সালে গঠিত এ ডিভিশন দ্বিতীয় মহাযুদ্ধে অংশ নিয়েছে। এ ছাড়া, কোরিয়া ও ভিয়েতনাম যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছে এটি। এ বাহিনীকে ইরাক এবং আফগানিস্তানেও মোতায়েন করা হয়েছিল।

কল্পিত রুশ হুমকির মোকাবেলায় মার্কিন ট্যাংক বহর মোতায়েনকে স্বাগত জানিয়েছে লাটভিয়াসহ বাল্টিক তীরবর্তী দেশগুলো এবং পোল্যান্ড। সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নভুক্ত কোনো দেশে এটাই মার্কিন সেনাদের অন্যতম বৃহৎ সেনা মোতায়েন। সেপ্টেম্বরে ব্রিটেনে ন্যাটো জোটের শীর্ষ সম্মেলনে দ্রুত হামলার উপযোগী একটি বাহিনী পূর্ব ইউরোপে গঠনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। সে সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে লাটভিয়ায় মার্কিন ট্যাংক বহর মোতায়েন হলো।

You Might Also Like