ভারতের মুসলিমরা সন্ত্রাসে জড়িত নন: প্রেসিডেন্ট প্রণব মুখোপাধ্যায়

নরওয়ে সফরে যাওয়ার আগে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করলেন ভারতের প্রেসিডেন্ট প্রণব মুখোপাধ্যায়। তিনি সেদেশের সংবাদমাধ্যমকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে স্পষ্ট জানান, “ভারতের মুসলিমরা মোটেও সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে যুক্ত থাকেন না। ১৫ কোটি মুসলিম জনসংখ্যার মধ্যে এক দু’জন সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে যুক্ত থাকতে পারেন, কিন্তু সন্ত্রাসবাদের বেশিরভাগটাই বাইরে থেকে আমদানি। বাইরে থেকেই সন্ত্রাসবাদ ভারতে ঢুকছে। ভারতের নিজস্ব সন্ত্রাসবাদী কাজকর্ম একেবারেই নগণ্য। আর দেশের মধ্যে যখন এমন কোনো সন্ত্রাসবাদের খবর মেলে আমরা তার বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিই।”

প্রেসিডেন্ট প্রণব মুখোপাধ্যায় বলেন, “ধর্ম বা সীমান্ত মানে না সন্ত্রাসবাদ। সন্ত্রাসবাদীদের কোনো আদর্শ নেই। তাদের একটাই লক্ষ্য সব কিছু ধ্বংস করা ও মানুষের মূল্যবোধকেই এক কথায় নাকচ করা। সন্ত্রাসবাদের মধ্যে ভালো-মন্দ খোঁজা উচিত নয়। কেউ বলতে পারেন না যে, ‘এ’ যে সন্ত্রাসবাদী কাজ করে তা ভালো, কিন্তু ‘বি’ যে সন্ত্রাসবাদী কাজ করে তা খারাপ। ‘ভালো সন্ত্রাসবাদী’ বা ‘খারাপ সন্ত্রাসবাদী’- এসব কথা বলাই অর্থহীন।”

প্রেসিডেন্ট বলেন, “ইন্দোনেশিয়ার পর মুসলিম জনসংখ্যার নিরিখে দ্বিতীয় দেশ হল ভারত। অথচ এই দেশের এত বিপুল সংখ্যক মুসলিম মূলত কোনো সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপে জড়িত নন, এটা খুবই সৌভাগ্যের কথা।” তিনি বলেন, “সন্ত্রাসবাদের বিরোধিতা করতেই হবে। কোনো অজুহাতেই সন্ত্রাসবাদকে প্রশ্রয় দেয়া যায় না।”

এর আগে আমেরিকা সফরের আগে মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএনকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন, “ভারতের মুসলিমরা দেশের জন্য প্রাণ দেবে কিন্তু দেশ বিরোধী কোনো কাজকর্মকে তারা প্রশ্রয় দেবে না। মুসলিমদের দেশপ্রেম নিয়ে প্রশ্ন তোলা উচিত নয়।”

আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদী সংগঠন আল-কায়েদার কথিত ভিডিও বার্তা প্রসঙ্গে নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন, “আল-কায়েদা যদি মনে করে ভারতের মুসলিমরা তাদের কথায় নাচবে তাহলে তারা ভুল ভেবেছে।’ মোদি আমেরিকা সফরে গিয়ে সেখানেও বস্তুত একই কথার প্রতিধ্বনি করে বলেছিলেন, ‘ভারতীয় মুসলিমরা আল-কায়েদাকে ‘ফেল’ করে দেবে।”

You Might Also Like