যুদ্ধবিরতি সত্ত্বেও দোনেস্ক বিমানবন্দরের দখল নিয়ে যুদ্ধ চলছে

ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় দোনেস্ক শহরের বিমানবন্দরের দখল নিয়ে দেশটির সেনা ও রুশ-পন্থি অস্ত্রধারীদের মধ্যে তুমুল সংঘর্ষ চলছে। দু’পক্ষের গোলাগুলিতে সের্গেই প্রোকোফিয়েভ বিমানবন্দরের মারাত্মক ক্ষতি হয়েছে।

স্বঘোষিত দোনেস্ক পিপলস রিপাবলিকের কমান্ডার- জেনারেল দেনিকিন ইরানের স্যাটেলাইট নিউজ চ্যানেল প্রেস টিভিকে বলেছেন, “এই মুহূর্তে আমরা নতুন টার্মিনালটি ছাড়া গোটা বিমানবন্দর নিয়ন্ত্রণ করছি। এখানে কোনো যুদ্ধবিরতি নেই। আমরা যুদ্ধবিরতিতে রাজি না হলেই ভালো করতাম; কারণ ইউক্রেনের সেনারা যুদ্ধবিরতির সুযোগে পুনর্গঠিত হয়েছে। প্রেসিডেন্ট পোরোশেঙ্কো আমেরিকার হাতের পুতুল এবং ওয়াশিংটনের নির্দেশ অনুযায়ী তিনি এ অঞ্চলকে অস্থিতিশীল করতে চান”

গত ৫ সেপ্টেম্বর মস্কোর মধ্যস্থতায় কিয়েভ  ও রুশ-পন্থি অস্ত্রধারীদের মধ্যে একটি যুদ্ধবিরতি প্রতিষ্ঠিত হয়। ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশগুলোতে যুদ্ধ বন্ধের লক্ষ্যে এটি করা হলেও বাস্তবে সংঘর্ষ বন্ধ হয়নি। গত মধ্য-এপ্রিলে এসব প্রদেশে কিয়েভ সেনা অভিযান শুরু করলে রক্তক্ষয়ী এ গৃহযুদ্ধ শুরু হয়। এরইমধ্যে মে মাসে দোনেস্ক ও লুগানস্ক অঞ্চলে অনুষ্ঠিত গণভোটে এসব অঞ্চলের জন্য ইউক্রেন থেকে স্বাধীন হয়ে যাওয়ার পক্ষে বিপুলভাবে ভোট দেয়। কিন্তু গণভোটের সে ফলাফল ইউক্রেন মেনে নেয়নি।

You Might Also Like