বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচন’২০১৪ : দুই প্যানেল থেকে ১৯ পদে ৩৮ প্রার্থী

নিউইয়র্ক (ইউএনএ) : বাংলাদেশ সোসাইটি ইন্্ক নিউইয়র্কের আসন্ন নির্বাচন ঘিরে উৎসবমুখর পরিবেশে মনোনয়নপত্র দাখিল করলেন প্রার্থীরা। নির্বাচনে প্যানেল হলো দু’টি ‘কামাল-সানি’ ও ‘কুনু-রহীম’ প্যানেল। গত ১৫ সেপ্টেম্বর সোমবার সন্ধ্যায় সোসাইটির কার্যালয়ে কামাল-সানি আর কুনু- রহীম প্যানেল প্রার্থীরা তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। ‘কামাল-রহীম’ নেতৃত্বাধীন সোসাইটির বিদায়ী কমিটির অধিকাংশ সদস্যই ‘কামাল-সানি’ প্যানেলভুক্ত হয়েছেন। উভয়ই প্যানেলে অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন একাধিক নতুন মুখ। দুই প্যানেল থেকে সোসাইটির কার্যকরী পরিষদের ১৯টি পদে মোট ৩৮জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র নির্বাচন কমিশনের কাছে জমা দেন। উল্লেখ্য, আগামী ২৬ অক্টোবর রোববার বাংলাদেশ সোসাইটির দ্বি-বার্ষিক (২০১৪-২০১৫) নির্বাচনে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে ।
বাংলাদেশ সোসাইটির নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, দুই প্যানেলের ৩৮টি মনোনয়নপত্র জমা থেকে নির্বাচন কমিশনের আয় হয়েছে ৬৬ হাজার ডলার আর মনোনয়নপত্রের প্যাকেজ বিক্রি করে আয় হয়েছে ১০ হাজার ৫০০ ডলার। প্রার্থীদের কাছ থেকে মনোনয়নপত্র গ্রহণ করেন নির্বাচন কমিশনের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার নূরুল হক। এ সময় নির্বাচন কমিশনের সদস্যবৃন্দ যথাক্রমে মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, মোহাম্মদ আজিজ, মোহাম্মদ এ হাকিম মিয়া ও আজমল আলী উপস্থিত ছিলেন।
মনোনয়নপত্র দাখিলের আগে ‘কুনুু-রহীম’ প্যানেলের প্রার্থী ও সমর্থকরা জ্যাকসন হাইটসস্থ সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহীম হাওলাদারের ‘পপুলার ড্রাইভিং স্কুল’ অফিসে সমবেত হন। সেখান থেকেই তারা মনোনয়নপত্র পূরণ করে দল বেঁধে সন্ধ্যায় সোসাইটি অফিসে যান। অন্যদিকে ‘কামাল-সানি’ প্যানেলের প্রার্থী ও সমর্থকরা জ্যাকসন হাইটসে সাধারণ স¤পাদক প্রার্থী জে মোল্লা সানির অফিসে সমবেত হন এবং মনোনয়নপত্র পূরণ করে সমর্থকদের নিয়ে দল বেঁধে বাংলাদেশে সোসাইটি অফিসে যান। এসময় উভয় প্যানেলের প্রার্থী ও সমর্থকরা দেশীয় স্টাইলে শ্লোগান তুলে সোসাইটি অফিসের সম্মুখস্থল মুখোরিত করে তুলেন। পরে তারা শান্তিপূর্ণ পরিবেশে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। প্রথমে মনোনয়নপত্র জমা দেন ‘কামাল-সানি’ প্যানেলের সভাপতি পদপ্রার্থী কামাল আহমেদ। এরপর সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী জে মোল্লা সানিসহ এই প্যানেলের প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দেন।
‘কামাল-সানি’ প্যানেলের প্রার্থীদের মনোনয়নপত্র জমা শেষে ‘কুনু-রহীম’ প্যানেলে পক্ষে প্রথম মনোনয়নপত্র জমা দেন সভাপতি পদপ্রার্থী আজমল হোসেন কুনু ও সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী আব্দুর রহীম হাওলাদার। এরপর এই প্যানেলের অন্যান্য প্রার্থীর একে একে তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।
এদিকে সোসাইটি অফিসে সৃশৃঙ্খল পরিবেশ বজায় রাখতে নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে সোসাইটি কার্যালয়ে নিরাপত্তা রক্ষী নিয়োগ করা হয়। সোসাইটির কর্মকর্তা, প্রার্থী, সমর্থক ও কমিউনিটি নেতৃবৃন্দের উপস্থিতিতে সোসাইটি অফিস কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায়। তবে এবারের নির্বাচনে উভয় প্যানেলকে ‘যোগ্য প্রার্থী’ পেতে হিমশিম খেতে হয়েছে। সৌহার্দ ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে মনোনয়নপত্র জমাদান পর্ব শেষ হওয়ায় নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে ইঞ্জিনিয়ার নূরুল হক সকলকে ধন্যবাদ জানান।
‘কামাল-সানি’ প্যানেলের প্রার্থীরা হচ্ছেন: সভাপতি- কামাল আহমেদ, সিনিয়র সহ সভাপতি- মহিউদ্দিন দেওয়ান, সহ-সভাপতি- সিরাজ উদ্দিন আহমেদ সোহাগ, সাধারণ সম্পাদক- জে মোল্লা সানি, সহ-সাধারণ সম্পাদক- আহবার এইচ চৌধুরী, কোষাধ্যক্ষ- শেখ সিরাজুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক- সাদী মিন্টু, সাংস্কৃতিক সম্পাদক- মোশাররফ হোসেন, প্রচার সম্পাদক- মফিজুল ইসলাম ভূঁইয়া, সমাজকল্যাণ সম্পাদক- সম্পাদক কাজী তোফায়েল ইসলাম, সাহিত্য সম্পাদক- কাজী ওয়াহিদ এলিন, ক্রীড়া সম্পাদক- সৈয়দ এনায়েত আলী, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক- ফারহানা চৌধুরী এবং কার্যকরী সদস্য- সৈয়দ ইলিয়াস খসরু, শাহ মিজানুর রহমান, এয়াকুত রহমান, নাসির উদ্দিন আহমেদ, শেখ ফারুকুল ইসলাম ও নাদির এ আইয়ুব।
‘কুনু-রহিম’ প্যানেলের প্রার্থীরা হচ্ছেন: সভাপতি- আজমল হোসেন কুনু, সিনিয়র সহ সভাপতি- আতাউর রহমান সেলিম, সহ সভাপতি- ফারুক হোসেন মজুমদার, সাধারণ সম্পাদক- আব্দুর রহিম হাওলাদার, সহ-সাধারণ সম্পাদক- ওসমান চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক- সৈয়দ এম কে জামান, কোষাধ্যক্ষ- মোহাম্মদ আলী, সাংস্কৃতিক সম্পাদক- মনিকা রায়, প্রচার সম্পাদক- খোরশেদ আলম, ক্রীড়া সম্পাদক- মোহাম্মদ এ হোসাইন বিপ্লব, সাহিত্য সম্পাদক- মোহাম্মদ সোহরাব হোসেন, সমাজকল্যাণ সম্পাদক- মিয়া মোশাররফ, ক্রীড়া সম্পাদক- প্রফেসর ওয়াজি উল্যাহ এবং কার্যকরী সদস্য- আবুল কে চৌধুরী, এ কে এম রফিকুল ইসলাম ডালিম, আকবর চৌধুরী, এমডি তুহীন আলী, সাইফুল ইসলাম ও মোহাম্মদ এস হক জামান।
‘কামাল-সানি’ প্যানেলের মনোনয়নপত্র জমা দেয়ার সময় কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের মধ্যে মুক্তিযোদ্ধা রশিদ আহমেদ ও আব্দুল মুকিত চৌধুরী, বাংলাদেশ বিয়ানীবাজার সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সমিতি ইউএসএ’র সাবেক উপদেষ্টা আজিজুর রহমান পাখি, বৃহত্তর কুমিল্লা সমিতির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হাজি খবির উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক মিয়া মোহাম্মদ দুলাল, বিয়ানীবাজার সমিতির সভাপতি আজিমুর রহমান বুরহান, ফেঞ্চুগঞ্জ এসোসিয়েশনের সভাপতি বোরহান দেওয়ান, নোয়াখালী এসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি সালামত উল্লাহ, সোসাইটর সাবেক সাধারণ সম্পাদক জয়াল আবেদীন, কমিউনিটি নেতা ডা. মাসুদুর রহমান, আব্দুল কাইয়ুম, আলী ইমাম শিকদার, তজম্মুল করীম, আব্দুল হাসিব হাসনু, জোসেফ চৌধুরী, হাজী এনাম, দরুদ মিয়া রনেল, প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
অপরদিকে ‘কুনু-রহীম’ প্যানেলের মনোনয়পত্র জমা দেয়ার সময় কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গের মধ্যে সোসাইটির সাবেক সভাপতি এম আজীজ, জালালাবাদ এসোসিয়েশন অব আমেরিকার সভাপতি বদরুল হোসেন খান ও সাধারণ সম্পাদক জুয়েল চৌধুরী, সাবেক সভাপতি জন এন উদ্দিন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী শাসমুল আবদীন, সোসাইটির কোষাধ্যক্ষ রুহুল আমীন সিদ্দিকী, কার্যকরী পরিষদ সদস্য কাজী আজহারুল হক মিলন, সাবেক কর্মকর্তা আতাউর রহমান আতা, এম এ মান্নান, বৃহত্তর কুমিল্লা সমিতির সাবেক সভাপতি আজাদ বাকির ও বগুড়া এমদাদুল হক কামাল, সমিতির সভাপতি রাফেল তালুকদার, মৌলভীবাজার ডিষ্ট্রিক্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি সৈয়দ জুবায়ের আলী, মুন্সীগঞ্জ বিক্রমপুর সমিতির একাংশের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম খান ও অপরাংশের সাধারণ সম্পাদক মিঠু হামিদ, বৃহত্তর ঢাকা সোসাইটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি আব্দুল বাসেত, বর্তমান সভাপতি মিজানুর রহমান মিজান, নারায়নগঞ্জ সমিতির সভাপতি মোহাম্মদ মহসিন, বাংলাদেশ স্পোর্টস কাউন্সিল অব আমেরিকার সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাসিত খান বুলবুল, কমিউনিটি নেতা মুজাহিদুল ইসলাম, একলিমুজ্জামান নুন, ইশতিয়াক রুমী, এডভোকেট নাসির উদ্দিন, রফিকুল বারী চৌধুরী, হাজী আব্দুর রহমান, আনোয়ার হোসেন, এবাদ চৌধুরী, সারোয়ার খান বাবু, গোলাম হোসেন, এ জে এম কামাল, মির্জা মামুন রশিদ, আহমেদুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

You Might Also Like