মোরগের দাম ২ লাখ টাকা!

আয়াম চেমানি, এক ধরনের দুর্লভ প্রজাতির মোরগ। সাধারণত মুরগীর মাংসের রং বড়জোর সাদা, লালচে বা বাদামি- এর বেশি তো নয়। কিন্তু এই মোরগের মাংস থমথমে রাতের মতো কালো!

ইন্দোনেশিয়ান ভাষা আয়াম অর্থ মুরগি আর চেমানি অর্থ সম্পূর্ণ কালো। জাভা এর মূল উৎপত্তিস্থল।

আয়াম চেমানির উৎপত্তি ইন্দোনেশিয়া। তবে খোদ ইন্দোনেশিয়াতেই এর খোঁজ পাওয়া মুশকিল। সেদেশের হাতে গোনা কিছু খামারি এই মোরগ পালন করে থাকেন। আয়াম চেমানির রক্ত বাদে চোখ, ঠোঁট, চামড়া, গিলা, কলিজাসহ দেহের আর সবই কালো। এরকম সর্বাঙ্গ কালো আর কোনো পশু-পাখি নেই।

এজন্য স্থানীয়দের বিশ্বাস, আয়াম চেমানি হলো জাদুর মোরগ। এই মোরগের নাকি ঐশ্বরিক ক্ষমতা আছে। আর এই লোকবিশ্বাসের কারণেই আয়াম চেমানির দাম এত বেশি। এর দাম বাংলাদেশি টাকায় প্রায় দুই লাখ টাকা মাত্র!

ইন্দোনেশিয়া থেকে কিনলেই শুধু এই দামে পাবেন। তবে মার্কিন মুলুক থেকে কিনলে, চোখের পলকে দাম হয়ে যাবে দ্বিগুন, মানে চার লাখ!

এশিয়ায় আয়াম চেমানি বেশি জনপ্রিয় এর মাংসের জন্য। কালো মাংসে কোনো ঐশ্বরিক ক্ষমতা রয়েছে বলে বিশ্বাস করেন অনেকে। এর মাংসে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে আয়রন। বিশেষ করে সন্তান জন্মদানের আগে ও পরে এর মাংস খাওয়া বেশি উপকারী।

এশিয়ানরা চেমানির মাংস খাওয়া ভাগ্যের সহায়ক ও ভাগ্য পরিবর্তনে বিশেষ ভূমিকা পালনকারী বলেও মনে করে।

এই প্রজাতির মুরগি বছরে ডিম পাড়ে প্রায় ৮০টি। ডিমের রং হয় ক্রিম রঙের।

You Might Also Like