সাক্ষ্যগ্রহণ স্থগিত চেয়ে সময় বৃদ্ধির আবেদন

রিট খারিজের বিরুদ্ধে করা আপিল নিষ্পত্তি না হওয়ায় দুর্নীতির দুই মামলার সাক্ষ্যগ্রহণ স্থগিত চেয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার পক্ষে সময় বৃদ্ধির আবেদন করা হয়েছে। খালেদা জিয়ার পক্ষে এ আবেদন করেন তার আইনজীবীরা।

বুধবার সকাল সোয়া ১১টার ৫০ মিনিটের দিকে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও চ্যারিটেবল ট্রাস্টের অর্থ আত্মসাতের মামলার হাজিরা দিতে ঢাকার ৩ নম্বর বিশেষ জজ বাসুদেব রায়ের আদালতে রওনা দেন  খালেদা জিয়া। পুরান ঢাকার বকশীবাজার আলিয়া মাদ্রাসা মাঠের অস্থায়ী আদালতে আজ ওই দুটি মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য ছিল।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক বিএনপির যুগ্ম-মহাসচিব মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, আইনের প্রতি সম্মান দেখিয়ে বিএনপি চেয়ারপার্সন আদালতে যাচ্ছেন।  বেলা ১১টা ৫০ মিনিটে তার গাড়িবহর গুলশান থেকে আদালতের উদ্দেশে রওনা হয়।

গত বুধবার এ মামলার সাক্ষ্যগ্রহণের দিন ধার্য করা হয়। এদিন খালেদা জিয়াকে স্বশরীরে হাজিরের নির্দেশ দেন বিচারিক আদালত।

দুদকের দায়ের করা জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় গত ১৯ মার্চ খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে অভিযোগ (চার্জ) গঠন করেন আদালত। চার্জ গঠন করা হয় খালেদা জিয়ার বড় ছেলে ও বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানসহ অপর আট আসামির বিরুদ্ধেও। ওই দিন খালেদার উপস্থিতিতে মামলা দুটির চার্জ শুনানি শেষে অভিযোগ গঠন করেন ঢাকা তৃতীয় ও বিশেষ জজ আদালতের বিচারক বাসুদেব রায়।

এরপর এ মামলায় অভিযোগ গঠনকারী বিচারকের নিয়োগের বৈধতা এবং অভিযোগ গঠনের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট করা হয়। উভয় আবেদনই হাইকোর্টে খারিজ হয়ে যায়। পরে আপিল বিভাগে এ বিষয়ে খালেদা জিয়ার পক্ষে আবেদন করা হয়।

You Might Also Like