যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে ই-ফাইলিং কার্যক্রম শুরু

ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার অংশ হিসেবে যোগাযোগ মন্ত্রণালয়ে ই-ফাইলিং কার্যক্রম শুরু হয়েছে। সোমবার সকালে যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ই-ফাইলিং কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

এ সময় উপস্থিত সাংবাদিকদের মন্ত্রী জানান, আজ (সোমবার) থেকে সড়ক বিভাগে শুরু হচ্ছে প্রথাগত নথির পরিবর্তে ইলেক্ট্রনিক পদ্ধতিতে নথি নিষ্পত্তির কার্যক্রম। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এটুআই কর্মসূচির সহযোগিতায় এ কার্যক্রম বাস্তবায়িত হচ্ছে।

তিনি বলেন, প্রাথমিক পর্যায়ে সড়ক বিভাগের পাঁচটি শাখা এ কার্যক্রমের আওতায় আসবে। শাখাগুলো হলো- রক্ষণাবেক্ষণ শাখা, প্রশাসন শাখা, সম্পত্তি শাখা, শৃঙ্খলা শাখা এবং আইসিটি ইউনিট।

মন্ত্রী বলেন, এ পদ্ধতিতে ডাক গ্রহণ ও প্রেরণ এবং নথিতে সিদ্ধান্ত গ্রহণ ইলেকট্রনিক পদ্ধতিতে অতি সহজে ও দ্রুততম সময়ে করা সম্ভব হবে।

এ কার্যক্রমে নথিতে উত্থাপিত নোট, গৃহীত সিদ্ধান্ত, পত্রজারি, নথির অবস্থান, তারিখ ও সময়সহ সকল তথ্য সফটওয়্যারে লিপিবদ্ধ থাকবে এবং তা নিয়মিত মনিটরিং করাও সম্ভব হবে। ফলে নথি কার্যক্রমে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত হবে বলে মন্ত্রী জানান।

তিনি বলেন, এ প্রক্রিয়া অনলাইনভিত্তিক হওয়ায় সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা যে কোনো স্থান থেকে এমনকি দেশের বাইরে অবস্থানকালেও দাফতরিক কাজ সম্পন্ন করতে পারবেন। এতে কাগজের ব্যবহার ব্যপকভাবে হ্রাস পেয়ে পর্যায়ক্রমে পেপারলেস অফিসে পরিণত হবে।

এসময় সড়ক বিভাগের সচিব এমএএন ছিদ্দিক, সওজ’র প্রধান প্রকৌশলী এম ফিরোজ ইকবাল, বিআরটিএ’র চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম, বিআরটিসি’র চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিন, ডিটিসিএ’র নির্বাহী পরিচালক কায়কোবাদ হোসেন, এটুআই প্রকল্পের ডোমেইন এক্সপার্ট উম্মে সালমা তানজিয়াসহ সড়ক বিভাগের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

You Might Also Like