ইসরাইলি নেতাদের বিচার শুরু করতে ইরানের আহ্বান

গাজায় যুদ্ধাপরাধের জন্য দখলদার ইসরাইলের বিচার দাবি করেছে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান। ফিলিস্তিনের ইসলামিক জিহাদ আন্দোলনের মহাসচিব রামাদান আব্দুল্লাহ মুহাম্মাদ শালাহ’র সঙ্গে এক টেলিফোন সংলাপে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মুহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ বলেছেন- গাজায় ইসরাইলি নেতারা ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে যে অপরাধযজ্ঞ চালিয়েছে, সেটার জন্য তাদেরকে অবশ্যই আন্তর্জাতিক আদালতের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে। এ সময় ইসরাইলের বিরুদ্ধে যুদ্ধে জয়লাভের জন্য তিনি ফিলিস্তিনিদের অভিনন্দন জানান।

গত মঙ্গলবার ফিলিস্তিনের প্রতিরোধ সংগঠনগুলো ও দখলদার ইসরাইলের মধ্যে একটি স্থায়ী যুদ্ধবিরতি চুক্তি সই হয়েছে। এ চুক্তি অনুযায়ী গাজার ওপর থেকে অবরোধ ক্রমান্বয়ে ওঠে যাবে।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, প্রতিরোধ সংগ্রামীদের সাম্প্রতিক বিজয় আরও বেশি সাফল্য অর্জন এবং ফিলিস্তিনিদের অধিকার বাস্তবায়নের পথকে সুগম করবে। তিনি বলেন, এর মধ্যদিয়ে বায়তুল মোকাদ্দাস (জেরুজালেম) মুক্ত হবে এবং স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠা লাভ করবে। গাজা উপত্যকা পুনর্গঠনে এগিয়ে আসতে আন্তর্জাতিক সমাজের প্রতি আহ্বান জানান জাওয়াদ জারিফ। ইরান গাজায় মানবিক তৎপরতা চালাতে প্রস্তুত রয়েছে বলেও তিনি ঘোষণা করেন।

গত মাসের শুরুর দিকে গাজায় বর্বর হামলা শুরু করে ইসরাইল। এ হামলা চলে প্রায় ৫০ দিন ধরে। এর ফলে অন্তত ২ হাজার ১৩৭ জন ফিলিস্তিনি শহীদ হয়েছেন। এর মধ্যে ৫৭০টি শিশু রয়েছে। আহত হয়েছে আরও ১১ হাজার ফিলিস্তিনি।

অন্যদিকে দখলদার ইসরাইল জানিয়েছে, গাজা যুদ্ধে তাদের ৬৯ জন নিহত হয়েছে। তবে হামাস বলেছে, তাদের হামলায় দেড় শতাধিক ইসরাইলি প্রাণ হারিয়েছে।

You Might Also Like