ব্রিকস ব্যাংকে যোগদানের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত করেছে বাংলাদেশ

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, সাম্প্রতিক বিশ্বে বহুল আলোচিত বহুজাতিক উন্নয়ন ব্যাংক ‘ব্রিকস ব্যাংক’-এ যোগদানের জন্য বাংলাদেশ চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট ব্যাংকের (এডিবি) ভাইস প্রেসিডেন্ট লক্ষ্মী ভেনকাটাচালামের সঙ্গে বৈঠক শেষে মঙ্গলবার বিকেলে সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা জানান।

অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘প্রস্তাবিত নতুন বহুজাতিক ব্রিকস ব্যাংকে যোগদানের বিষয়ে ইতোমধ্যেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে চায়না প্রস্তাবিত অপর ব্যাংক এশিয়ান ইনফ্রাস্টাকচার ইনভেস্টমেন্ট ব্যাংক গঠনের বিষয়টি বিলম্বিত হওয়ার কারণে এ বিষয়ে এখনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় হয়নি।’

এদিকে অর্থ মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা যায়, ব্রিকস ব্যাংকে যোগদানের লক্ষ্যে বিস্তারিত জানতে চেয়ে ইতোমধ্যেই উদ্যোক্তা পাঁচ দেশে (ব্রাজিল, রাশিয়া, ভারত, চীন ও দক্ষিণ আফ্রিকা) অবস্থানরত বাংলাদেশের রাষ্টদূতদের কাছে চিঠি দেওয়া হয়েছে। তারা এ বিষয়ে তথ্য পাঠানো শুরু করেছেন। এছাড়া সম্প্রতি ঢাকায় নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনারকে ডেকে ব্রিকস ব্যাংকে বাংলাদেশের যোগদানের আগ্রহের কথা জানান অর্থমন্ত্রী।

ব্রিকস ব্যাংক গঠনের বিষয়ে গত ১৫ জুলাই ব্রাজিলে উদ্যোক্তা পাঁচ দেশ চুক্তি স্বাক্ষর করে। প্রাথমিকভাবে এ ব্যাংকের অনুমোদিত মূলধনের পরিমাণ নির্ধারণ করা হয়েছে ১০০ বিলিয়ন ডলার। এর মধ্যে ১০ বিলিয়ন ডলার করে উদ্যোক্তা পাঁচ দেশের বিনিয়োগের পরিমাণ হবে ৫০ বিলিয়ন ডলার।

এদিকে বৈঠক শেষে এডিবি’র ভাইস প্রেসিডেন্ট সাংবাদিকদের বলেন, ‘অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে অত্যন্ত ফলপ্রসূ আলোচনা হয়েছে। তার সঙ্গে এডিবি’র অর্থায়নে বিভিন্ন প্রকল্পের অগ্রগতি নিয়ে আলোচনা হয়েছে। বিশেষ করে অবকাঠামো, যোগাযোগ, কৃষি, আইসিটি ইত্যাদি খাতে বেসরকারি খাতে বিনিয়োগ বাড়ানো বিষয়ে গুরুত্বারোপ করা হয়েছে।

‘আগামী এক বছরের মধ্যে বাংলাদেশ মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হতে পারবে’ এমন আশাবাদ ব্যক্ত করে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে এডিবি সার্বিক সহযোগিতা দেবে।

You Might Also Like