হলমার্কের এমডিসহ ৩৩ জনের বিরুদ্ধে সোনালী ব্যাংকের মামলা

ঋণ কেলেঙ্কারির মাধ্যমে আত্মসাতকৃত টাকা উদ্ধারে হলমার্ক গ্রুপের এমডিসহ ৩৩ জনের বিরুদ্ধে ঋণ, সুদ ও মামলা পরিচালানার খরচ বাবদ ৭৫৫ কোটি ৪৪ লাখ ৮ হাজার ৪২৩ টাকা দাবি করে মামলা করেছে সোনালী ব্যাংক।

মঙ্গলবার ঢাকার দেওয়ানী আদালতে  সোনালী ব্যাংকের শেরাটন শাখার ব্যবস্থাপক ডিজিএম আবুল হাশেম বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন।

২৮ আগস্ট আসামিদের বিরুদ্ধে সমন জারির জন্য মামলার পরবর্তী তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সোনালী ব্যাংকের লিগ্যাল এডভাইজারের সহকারী এডভোকেট জাহাঙ্গীর হোসেন।

এ যাবতকালের মধ্যে সবচেয়ে বড় অঙ্কের টাকা দাবি করে এ মামলাটি করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

মামলায় অভিযুক্তরা হলেন-হলমার্ক গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তানভীর মাহমুদ ও তার স্ত্রী হলমার্ক গ্রুপের চেয়ারম্যান জেসমিন ইসলাম, সোনালী ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হুমায়ুন কবির, ডিএমডি মাইনুল হোসেন, জিএম মীর মাইদুর রহমান, ননী গোপাল এবং সোনালী ব্যাংকের শেরাটন শাখার সাবেক কর্মকর্তাসহ ৩৩ জন।

মামলার বাদি সোনালী ব্যাংক শেরাটন শাখার ব্যবস্থাপক ও ডিজিএম আবুল হাশেম বলেন, ঋণের টাকা ফেরত আনার জন্য হলমার্ক গ্রুপের দু’টি প্রতিষ্ঠান ম্যাক্স স্পিনিং মিল ও আনোয়ার স্পিনিংয়ের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের ব্যাংকিং ইতিহাসে সোনালী ব্যাংকের মতো এত বড় অঙ্কের ঋণ কেলেঙ্কারীর ঘটনা আগে কখনো ঘটেনি। হলমার্ক গ্রুপের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে সোনালী ব্যাংকের টাকা আদায়ের মামলার সংখ্যা দাঁড়াল ১৬ টি।

You Might Also Like