মাতারবাড়ী বিদ্যুৎ প্রকল্প অনুমোদন

কক্সবাজারের মাতারবাড়ীতে ৩৬ হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে ১২০০ মেগাওয়াট ক্ষমতা সম্পন্ন আল্ট্রাসুপার ক্রিটিক্যাল কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্র শীর্ষক প্রকল্পের অনুমোদন দিয়েছে সরকার।

মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) সভায় এ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়।

অনুমোদিত এ প্রকল্পের মোট ব্যয় ধরা হয়েছে ৩৫ হাজার ৯৮৪ কোটি ৪৬ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিলের ৪ হাজার ৯২৬ কোটি ৬৬ লাখ, জাইকার অর্থায়ন ২৮ হাজার ৯৩৯ কোটি ৩ লাখ এবং সংস্থার নিজস্ব অর্থায়ন ২ হাজার ১১৮ কোটি ৭৭ লাখ টাকা।

প্রকল্পের প্রধান উপাদান দু’টি ইউনিটে ৬০০ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন দু’টি স্টিম টারবাইন, সার্কলেটিং কুলিং ওয়াটার স্টেশন স্থাপন, ২৭৫ মিটার উচ্চতার দু’টি স্টেক, আবাসিক ও সামাজিক এলাকা গঠন, পানি শোধন ব্যবস্থা, সাব-স্টেশন, জেটি, কয়লা সংরক্ষণ ও ব্যবস্থাপনা, অ্যাশ ডিসপোজাল এরিয়া এবং বাফার জোন নির্মাণ করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মোট পাঁচটি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে মোট ব্যয় হবে ৩৭ হাজার ৩৩৯ টাকা। সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকে ১১৮ কোটি ও প্রকল্প সাহায্য থেকে ২৯ হাজার ৫৩৫ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে।

অনুমোদিত প্রকল্পগুলো হলো- যশোর সফটওয়্যার টেকনোলজি পার্ক প্রকল্পের ব্যয় ২৪০ কোটি ৭৪ লাখ টাকা। হাতে-কলমে কারিগরি প্রশিক্ষণে নারীদের গুরুত্ব¡ দিয়ে বিটাকের কার্যক্রম সম্প্রসারণ আত্মকর্মসংস্থান সৃষ্টি ও দরিদ্র বিমোচন প্রকল্পের ব্যয় ৪৭ কোটি ৩৩ লাখ টাকা। গুচ্ছগ্রাম প্রকল্পের (ক্লাইমেট ভিকটিম রিহ্যাবিলিটেশন প্রজেক্ট) ব্যয় ১৮৭ কোটি ২৯ লাখ টাকা।

এছাড়া, হাওর অঞ্চলের বন্যা ব্যবস্থাপনা ও জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পের ব্যয় ৮৮০ কোটি ১ লাখ টাকা। এর মধ্যে সরকারি তহবিলের ২৮৩ কোটি ৩১ লাখ ও জাইকার ৫৯৬ কোটি ৭০ লাখ টাকা।

বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এবং পরিকল্পনা সচিব ভূঁইয়া সফিকুল ইসলাম।

You Might Also Like