ভালো অভিনেত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখি : সামিনা

খুলনার সামিনা বাসার। ছোটবেলা থেকেই তার নাচের প্রতি ঝোঁক। টেলিভিশন রিয়েলিটি শো নতুন কুড়িতে অংশ নিয়েছিলেন তিনি। নাচ ও অভিনয়ের প্রতি দুর্বলতা থাকলেও লেখাপড়ার জন্য পাঞ্জাবের চন্ডিগড় বিশ্ববিদ্যালয়ে চলে যান তিনি। সেখানেও বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ নেন সামিনা বাসার।

লেখাপড়া শেষ হওয়ার পর নাট্য নির্মাতা বি ইউ শুভর সঙ্গে সামিনাকে পরিচয় করিয়ে দেন অভিনয়শিল্পী ও প্রযোজক নজরুল রাজ। স্বল্প আলাপের পর পরিচালক বি ইউ শুভ তাকে নাটকে অভিনয়ের প্রস্তাব দেন। এমন প্রস্তাব পেয়ে সামিনাও রাজি হয়ে যান।

তারপর দীর্ঘদিন ধরে ক্যামেরার সামনে দাঁড়ানোর স্বপ্ন দেখে আসা সামিনা অভিনয় শুরু করেন। ‘প্রেম ও পরীর গল্প’ শিরোনামের নাটকের মাধ্যমে প্রথম ক্যামেরার সামনে দাঁড়ান তিনি। গত ২৩ ও ২৪ ডিসেম্বর রাজধানীর উত্তরায় নাটকটির দৃশ্যায়ণের কাজ হয়েছে। বি ইউ শুভ পরিচালিত এতে সামিনার বিপরীতে অভিনয় করেছেন এস এন জনি।

এ প্রসঙ্গে নির্মাতা বি ইউ শুভ বলেন, ‘সামিনার সঙ্গে পরিচয়ের প্রথম দিনই বুঝতে পেরেছিলাম তিনি ভালো করবেন। ক্যামেরার সামনে প্রত্যাশার তুলনায় ভালো করেছেন। আশা করছি, আরো ভালো করবেন সামিনা।’

সামিনা বাসার বলেন, ‘ভালো একজন অভিনেত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখি। সেই স্বপ্নপূরণের প্ল্যাটফর্মটি তৈরি করে দিয়েছেন বি ইউ শুভ ভাই। তার কাছে কৃতজ্ঞ। ‘প্রেম ও পরীর গল্প’ নাটকটির কাহিনি খুব চমৎকার। আমার প্রথম অভিনীত নাটকটি নিয়ে আমি অনেক আশাবাদী।’

তিনি আরো বলেন, ‘অভিনয়ের পাশাপাশি একক নৃত্য ও দলীয় নৃত্য করা ইচ্ছে আছে। এছাড়া নিজেকে একজন প্রতিষ্ঠিত শিল্পী হিসেবে দেখতে চাই।’

এছাড়াও মাহমুদ হাসান রানার ‘কৃপণ স্বামী’ নাটকে অভিনয় করেছেন সামিনা। রুহুল আমিন পথিকের রচনায় এতে তার সঙ্গে অভিনয় করেন শ্যামল মাওলা। শাহেদ ফুয়াদের ‘খুনসুটি’ নাটকে তার বিপরীতে অভিনয় করেন নিলয়। একই পরিচালকের ‘ক্রস কানেকশন’ নাটকে সামিনার বিপরীতের অভিনয় করেন অন্তু। এছাড়া গত ২৭ ডিসেম্বর সামিনা কোকাকোলার বিজ্ঞাপনচিত্রে মডেল হয়েছেন। এটি নির্দেশনা দিয়েছেন পলক।

You Might Also Like