ওয়ানডে সিরিজ অনেক কঠিন হবে : সাকিব

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে শেষ ওয়ানডে সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জিতেছিল বাংলাদেশ।

গত জুলাইয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে ওয়ানডে সিরিজ ছিল খুবই গুরুত্বপূর্ণ। টেস্ট সিরিজ বাজেভাবে হারের পর ওয়ানডেতে বাংলাদেশ কেমন করে সেটাই ছিল দেখার। মাশরাফির নেতৃত্বে প্রথম ম্যাচ জিতে ভালো বার্তা দেয় দল। সাকিব ও তামিমের দারুণ ব্যাটিং পারফরম্যান্সের পর মাশরাফির দুর্দান্ত বোলিংয়ে ক্যারিবীয় বধ করে সহজেই।

দ্বিতীয় ম্যাচে মাত্র ৩ রানের জন্য হেরে গেলেও বাংলাদেশের পারফরম্যান্স ছিল ইতিবাচক। শেষমেশ শেষ ওয়ানডে জিতে মাশরাফিরা প্রমাণ করে রঙিন পোশাকে দেশের মাটিতে কিংবা দেশের বাইরে দুজায়গাতেই বাংলাদেশ অসাধারণ।

বছরের শেষ প্রান্তে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে আতিথেয়তা দিচ্ছে বাংলাদেশ। টেস্ট সিরিজ এরই মধ্যে জিতে গেছে স্বাগতিকরা। এবার রঙিন পোশাকে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বধের অপেক্ষা। তবে কাজটা কি খুব সহজ হবে? মোটেও না। টেস্ট অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের মতে, ওয়ানডে সিরিজ হবে কঠিন। তাই প্রস্তুতি হবে সেভাবে।

‘‘আমার কাছে মনে হয় ওয়ানডে সিরিজ অনেক কঠিন হবে। আমাদের ওভাবেই প্রস্তুতি নিতে হবে।’’

তবে পুরনো সুখস্মৃতি আত্মবিশ্বাস দিচ্ছে সাকিবকে। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে তাদের মাটিতে হারানোয় সাকিব নিজেদেরকেই এগিয়ে রাখছেন ওয়ানডে সিরিজে। পাশাপাশি জয়ের মধ্যে থাকায় এবং নিজেদের হোম কন্ডিশনে খেলায় বাংলাদেশই তার কাছে ফেভারিট।

‘‘আমরা ওয়ানডে খুবই ভালো খেলছি। জিম্বাবুয়ে সিরিজ জিতেছি। এবার আমরা বেশ ভালো একটা প্রতিপক্ষের সাথে তিনটা ওয়ানডে খেলবো। তবুও আমাদের সেরা ক্রিকেটটাই খেলতে হবে যদি ভালো করতে হয়।’’

এশিয়া কাপের শুরু থেকে তামিমের সার্ভিস পাচ্ছে না বাংলাদেশ। সাকিব ছিটকে যান মাঝপথে। দুজনই এবার সীমিত পরিসরে একসঙ্গে ফিরছেন। তাদের ছাড়া বাংলাদেশ এশিয়া কাপের ফাইনাল খেলেছে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজ জিতেছে ৩-০ ব্যবধানে। দলের সেরা দুই তারকা ফিরে আসায় নিশ্চিতভাবেই বাংলাদেশ ফেভারিট।

তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজ বরাবরই ভয়ংকর। নিজেদের দিনে তারা সেরা। তাই বাড়তি সতর্ক হয়েই থাকতে হবে টিম বাংলাদেশকে।

You Might Also Like