মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় নিহত সেই শিশুকে নিয়ে চলচ্চিত্র

রাজধানীর শাহজাহানপুর রেলওয়ে কলোনিতে পরিত্যক্ত পানির পাইপের মধ্যে পড়ে মর্মান্তিক মৃত্যু হয় মো. জিহাদের। এ ঘটনাকে উপজীব্য করেই প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া নির্মাণ করছে চলচ্চিত্র। জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আব্দুল আজিজের মূল ভাবনায় এর কাহিনি ও সংলাপ লিখেছেন নাজিম উদ দৌলা। তবে নাম ঠিক না হওয়া চলচ্চিত্রটি কে পরিচালনা করবেন তা এখনো চূড়ান্ত হয়নি।

এ প্রসঙ্গে আব্দুল আজিজ বলেন, ‘সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে দেশের অভ্যন্তরে ঘটে যাওয়া নানা বাস্তব ঘটনার উপর ভিত্তি করে চলচিত্র নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া। যাতে করে আমাদের মাঝে সামাজিক সচেতনতা বাড়ে। ‘দহন’ সিনেমাটি ছিল সেই যাত্রার দ্বিতীয় পদক্ষেপ। মুক্তির পর থেকেই দর্শকদের কাছ থেকে ব্যাপক সাড়া পাচ্ছি, সামনে এগিয়ে যেতে যা আমাদের সাহস যোগাচ্ছে। বাংলাদেশে ঘটে যাওয়া বাস্তব ঘটনাগুলো আমরা নিয়মিত রুপালি পর্দায় তুলে আনতে চাই। অর্থাৎ এখন থেকে আপনাদের জীবনের গল্পই হবে আমাদের চলচ্চিত্র নির্মাণের উপজীব্য বিষয়।’

২০১৪ সালের ২৬ ডিসেম্বর বিকেল চারটার দিকে শাহজাহানপুর রেলওয়ে কলোনিতে বাসার পাশে পরিত্যক্ত পানির পাম্পের কাছে অন্য শিশুদের সঙ্গে খেলতে গিয়ে পাম্পের একটি পরিত্যক্ত দেড় ফুট ব্যাসের গভীর পাইপে পড়ে যায় জিহাদ। ফায়ার সার্ভিস দীর্ঘ ২৩ ঘণ্টার শ্বাসরুদ্ধকর অভিযানেও জিহাদকে উদ্ধার করতে পারেনি। এরপর একদল উদ্যমী তরুণের চেষ্টায় শিশু জিহাদের নিথর দেহ উদ্ধার করা হয়।

মৃত্যু জীবনের এক অমোঘ নিয়তি। স্বাভাবিকভাবে মরণ তো আসবেই তবে ওয়াসার পরিত্যক্ত পাইপের মরণফাঁদে পড়ে কেন? উত্তর হয়তো সচেতনতার অভাব অথবা ত্রুটির কারণ। মাঝে মাঝেই এমন দুর্ঘটনার সংবাদ পড়তে হয় খবরের পাতা কিংবা টেলিভিশনের পর্দায়। তবে সচেতনতা বৃদ্ধির জন্য প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়ার এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন চলচ্চিত্র বোদ্ধারা।

You Might Also Like